এশিয়ায় বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হবে সর্বোচ্চ: এডিবি

রপ্তানি ও সরকারি বিনিয়োগে ইতিবাচক ধারা অব্যহত থাকায় চলতি অর্থবছর শেষে বাংলাদেশে মোট দেশজ উৎপাদনে (জিডিপি) ৮ শতাংশ প্রবৃদ্ধি পেতে পারে বলে মনে করছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক-এডিবি। যা এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশগুলোর মধ্যে সর্বোচ্চ হবে।

বুধবার (৩ এপ্রিল) এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের (এডিবি) এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট আউটলুক (এডিও) -এর প্রতিবেদনে এই তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, আশা করা যাচ্ছে যে, আসন্ন অর্থবছরে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি আট শতাংশ হবে। বলিষ্ঠ বেসরকারি ভোগ, বর্ধিত সরকারি বিনিয়োগ, রপ্তানি পরিমাণ বৃদ্ধি ও শিল্পবাণিজ্যের প্রসারের কারণে এই অগ্রগতি ঘটবে।

এডিবি প্রত্যাশা করছে, বৈশ্বিক অর্থনৈতিক অগ্রগতি খুব বেশি না হলেও উন্নয়নের জন্য বাংলাদেশে বাণিজ্যের অনুকূল পরিবেশ বজায় থাকবে। সেই সাথে, এদেশে রপ্তানি ও রেমিটেন্সের পরিমাণ আরও বাড়বে। পরিবেশ সুরক্ষায় নীতি বজায় রাখা ও অবকাঠামোগত অসংখ্য প্রকল্প দ্রুত বাস্তবায়নে সরকারি উদ্যোগ চলমান থাকবে।

এডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশ বলেন, বাংলাদেশের এই অগ্রগতি ধরে রাখতে দীর্ঘ মেয়াদে শিল্পের প্রসারিত ভিত্তি, বৈচিত্রপূর্ণ রফতানি পণ্য, বেসরকারি খাতের উন্নয়নে ব্যবসায়িক পরিবেশের উন্নয়ন, ট্যাক্স বাড়ানো, সম্পদের সুষম বণ্টনের জন্য রাজস্ব আরও বাড়ানো ও মানব সম্পদের উন্নয়ন ঘটাতে হবে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের ভিশন অনুযায়ী, সুদূরপ্রসারী উন্নয়নের জন্য বৃহৎ অর্থনীতির প্রতি গুরুত্বারোপ অব্যাহত রাখা, শক্তিশালী ঋণ ব্যবস্থাপনা, ব্যাংক খাতকে শক্তিশালী করা, অবকাঠামোগত সীমাবদ্ধতা দূর করা এবং ব্যবসায় উদ্যোগের খরচ কমানো জরুরি।

মন্তব্য লিখুন :