চবি প্রশাসনের বিরুদ্ধে অপপ্রচার, শিক্ষক কর্মকর্তা কর্মচারীদের প্রতিবাদ

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) উপাচার্য, প্রক্টরসহ প্রশাসনের বিভিন্ন পদে দায়িত্বপালনকারী শিক্ষক ও কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার ও ফেসবুকে নোংরা, অশালীন ভাষায় পোস্ট দেওয়ার প্রতিবাদে সোমবার মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা। এসময় তারা এসব ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের প্রতি দাবি জানান।

বঙ্গবন্ধু পরিষদ, চবির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং চবি কর্মচারী সমিতির সভাপতি মো. আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে এবং বিজ্ঞান অনুষদের উচ্চমান সহকারী ও বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুমন মামুনের পরিচালনায় এতে বক্তব্য রাখেন, চবি রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) কেএম নুর আহমদ, নাট্যকলা বিভাগের সভাপতি শামীম হাসান, চবি পদার্থ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আসাদুল হক, ইতিহাস বিভাগের শিক্ষক রন্টু দাশ, দেবাশীষ প্রামাণিক, ম্যানেজমেন্ট বিভাগের শিক্ষক জিমি সারোয়ার, একাউন্টিং বিভাগের শিক্ষক তৌহিদুল ইসলাম, প্রধান হিসাব নিয়ামক (ভারপ্রাপ্ত) মো. ফরিদুল আলম চৌধুরী, চবি অফিসার সমিতির সভাপতি একেএম মাহফুজুল হক, সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম, বঙ্গবন্ধু পরিষদ, চবির সাধারণ সম্পাদক মশিবুর রহমান। এছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় বক্তরা বলেন, মহাকালের মহানায়ক, বাঙালি জাতির পিতা, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মহান আদর্শকে ধারণ করে তাঁরই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন ও শিক্ষাদর্শনের আলোকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে গত চার বছরে অভূতপূর্ব উন্নয়নসহ সাম্প্রাদায়িক অপশক্তির প্রভাবমুক্ত হয়েছে।

বিগত চার বছরে মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের অভূতপূর্ব ও দৃশ্যমান বাস্তবায়ন আজ দেশের অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্যও অনুকরণীয়। প্রতিষ্ঠার প্রায় ৫০ বছর পর এ বিশ্ববিদ্যালয়ের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি নির্মাণসহ, মহান স্বাধীনতা সংগ্রামের স্মারক হিসেবে ‘জয় বাংলা ভাস্কর্য, বঙ্গবন্ধু উদ্যান, শেখ রাসেল পার্ক, শেখ কামাল জিমনেসিয়াম স্থাপন, শেখ সুলতানা কামাল খুকি পার্ক, শেখ জামাল পার্ক, কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারে বঙ্গবন্ধু কর্নার স্থাপন, বঙ্গবন্ধুর জীবন চরিত নিবিড়ভাবে পাঠ, চর্চা ও গবেষণার জন্য বঙ্গবন্ধু গবেষণাকেন্দ্র (বঙ্গবন্ধু চেয়ার) স্থাপনসহ বঙ্গবন্ধুকে সর্বোচ্চ মর্যাদায় সুপ্রতিষ্ঠিত ও জাতির জনকের পরিবারের স্মৃতিকে অমর করে রাখতে একের পর এক উদ্যোগ সফলভাবে বাস্তবায়ন করায় বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘাপটি মেরে থাকা স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তির দোসররা ঈর্ষান্বিত হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত শিক্ষক ও কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মিথ্যাচার করে তাদের মর্যাদাহানিকর কর্মকাণ্ড চালাচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন :