মাদকের টাকা জোগাড় করতে হত্যা করেন তারা

চুয়াডাঙ্গার চাঞ্চল্যকর স্কুলছাত্র সুভাষ কুমার হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। মাদকের টাকা জোগাড় করতেই মূলত সুভাষকে হত্যা করা হয়।

শনিবার (৩ নভেম্বর) রাতে জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে স্কুলছাত্র সুভাষ কুমার হত্যার সঙ্গে জড়িত তিন যুবককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. কলিমুল্লাহ জানান, গ্রেপ্তারকৃতরা স্বীকার করেছে মাদকের টাকা জোগাড় করতেই সুভাষকে হত্যা করা হয়। ওই ঘটনার সময় সুভাষের কাছে থাকা টাকা ও মোবাইল ফোন ছিনতাই করার জন্যই তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- চুয়াডাঙ্গা শহরের ফার্ম পাড়ার মকবুল হোসেনের ছেলে সুমন (১৮), সিনেমা হল পাড়ার মিরাজুল ইসলামের ছেলে ইরাক (১৭) ও নুরনগর কলোনি পাড়ার ফুয়াদ হোসেনের ছেলে ফরহাদ (২০)।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ দেলোয়ার হোসেন খান জানান, আজ দুপুরে তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করা হবে।

উল্লেখ্য, গত ২৪ অক্টোবর রাতে সদর উপজেলার ৬৩ আড়িয়া গ্রামের গণেশ চন্দ্রের ছেলে সুভাষ পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে চুয়াডাঙ্গা শহরে পান্না সিনেমা হলে নামযজ্ঞ অনুষ্ঠান দেখতে যায়। এরপর রাত ১২টার পর সে নিখোঁজ হয়। পরদিন সকালে নামযজ্ঞ অনুষ্ঠানের পাশের একটি গলি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

মন্তব্য লিখুন :