সোনাইমুড়ীতে যুবদল নেতাকে গুলি করে হত্যা

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে আমজাদ হোসেন (৩৬) নামের এক যুবদল নেতাকে পিটিয়ে ও গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১টার দিকে উপজেলার আমিশাপাড়া ইউনিয়নের ধান্যপুর গ্রামের একটি খালপাড় থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে সোনাইমুড়ি থানা পুলিশ।

নিহত আমজাদ হোসেন আমিশাপাড়া ৮নং ওয়ার্ড কেশবপুর গ্রামের নূরুল ইসলামের ছেলে। তিনি ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি ছিলেন।

স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, গত জাতীয় নির্বাচনের দুই দিন আগে আমজাদের বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর সে ঢাকায় চলে যায়। গত মঙ্গলবার ঢাকা থেকে বাড়িতে আসে আমজাদ। দুপুরে নিজের বাড়ির পাশের একটি চা দোকানে বসেছিলেন তিনি। এ সময় মোটরসাইকেল ও সিএনজি অটোরিক্সাযোগে কয়েকজন অস্ত্রধারী তাকে জিম্মি করে তুলে নিয়ে যায়। পরে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা পার্শ্ববর্তী ধান্যপুর গ্রামের একটি খাল পাড়ে নিয়ে আমজাদকে পিটিয়ে ও গুলি করে হত্যা করে চলে যায়।

সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুস সামাদ বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে নিহতের লাশ পড়ে থাকতে দেখে। পরে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে ব্যক্তিগত শত্রুতার জেরে আমজাদ হোসেন খুন হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

মন্তব্য লিখুন :