সেই রুবেল দেড় শতাধিক প্রেম করেছেন

ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলা হাসপাতালে এক নারী মেডিকেল অফিসারকে উত্ত্যক্তকারী রুবেল খানকে (২৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারের পর রুবেল দেড় শতাধিক প্রেমের ঘটনার কথা স্বীকার করেছে।

বৃহস্পতিবার (২৪ এপ্রিল) গ্রেপ্তারকৃত রুবেলকে নিয়ে আসে গৌরীপুর থানা পুলিশ। এর আগে বুধবার (২৩ এপ্রিল) রাতে নেত্রকোনা জেলার পাল্লা বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সে গৌরীপুর উপজেলার বোকাইনগর ইউনিয়নের গড়পাড়া গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে।

গৌরীপুর থানার ওসি আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ডাক্তারকে উত্ত্যক্ত করার কথা স্বীকার করেছে রুবেল। এ পর্যন্ত রুবেল দেড় শতাধিক প্রেমের ঘটনার কথাও উল্লেখ করেছে। রুবেলের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী মেয়েদের নিয়মিত উত্ত্যক্তকারী সে।

উলেখ্য, রুবেল খান রোগী সেজে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে এক নারী চিকিৎসককে যৌন হয়রানি করতো। গত ২২ এপ্রিল সোমবার দুপুরে ওই চিকিৎসক স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দায়িত্ব পালন শেষে রিকশাযোগে গৌরীপুর বাসস্ট্যান্ড যাওয়ার পথে বখাটে রুবেল তাকে যৌন হয়রানি করেন।

ওই চিকিৎসক বাসস্ট্যান্ডে গিয়ে ময়মনসিংহগামী বাসে উঠলে রুবেল পিছু নিয়ে ফাঁকা বাসের ভেতর গিয়ে ওই চিকিৎসককে উত্ত্যক্ত করে। এক পর্যায়ে ওই চিকিৎসক আত্মরক্ষায় বাস থেকে নেমে সোজা ইউএনও ফারহানা করিমের বাসায় চলে যান। পরে ওই দিন রাতেই তিনি বাদী হয়ে রুবেলের বিরুদ্ধে গৌরীপুর থানায় মামলা দায়ের করেন।

মন্তব্য লিখুন :