ধান কাটতে না যাওয়ায় শ্রমিক দম্পতিকে কুপিয়ে জখম

বগুড়ার ধুনটে অসুস্থতার কারণে ধান কাটতে না যাওয়ায় এক শ্রমিকবগুড়া করেছেন আবদুল আলিম নামে এক ব্যবসায়ী। তাদের ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার সকালে উপজেলার চিকাশী গ্রামের ওই ঘটনায় বুধবার দুপুরে ওই শ্রমিক ধুনট থানায় অভিযোগ করেছেন। বিকাল পর্যন্ত পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করেনি। আবদুল আলিম পালিয়ে যাওয়ায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

আহতরা হলেন ধুনটের আরকটিয়া গ্রামের মৃত তোজাম প্রামাণিকের ছেলে লিটন মিয়া (৪২) ও তার স্ত্রী মুনজেরা বেগম (৩৫)।

অভিযোগে জানা গেছে, চিকাশী গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম ব্যবসায়িক কাজে দীঘিদিন শেরপুর শহরে বসবাস করেন। শ্রমিক লিটন মিয়া ও তার স্ত্রী মুনজেরা বেগম পরিবার নিয়ে তার বাড়ি দেখাশোনা ও শ্রমিকের কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন।

মঙ্গলবার সকাল ৬টায় চিকাশী গ্রামের আবু হারের ছেলে ব্যবসায়ী আবদুল আলিম তার জমির ধান কাটতে শ্রমিক লিটন মিয়াকে ডাকতে যান। কিন্তু অসুস্থতার কারণে তিনি ধান কাটতে অনিহা প্রকাশ করেন। এতে ব্যবসায়ী আব্দুল আলিম ক্ষিপ্ত হয়ে ধারালো কাঁচি দিয়ে তাকে কোপাতে থাকেন।

এ সময় বাধা দিলে তার স্ত্রী মুনজেরা বেগমকেও কুপিয়ে আহত করে আবদুল আলিম। পরে স্থানীয় লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। লিটন মিয়া বুধবার দুপুরে ধুনট থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

ধুনট থানার ওসি ইসমাইল হোসেন বলেন, এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন :