আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলায় অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে হত্যা

নেত্রকোনায় প্রতিবেশী এক নারীকে পরকীয়া প্রেমিকের সাথে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলায় শাহানূর নামের এক গৃহবধূকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেছে । এ সময় শাহানূরের ভাই আবুল কালাম, প্রতিবেশী রোকসানাসহ পাঁচজন আহত হন।

শনিবার ভোর রাতে নেত্রকোনা পৌর শহরের সাতপাই বড় স্টেশন রেল কলোনি এলাকায় হামলার ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার পর দুই নারীসহ আটজনকে আটক করেছে পুলিশ। আটক ব্যক্তিরা হলেন- নূরজাহান, সফুরা, কাজল, মিঠুন, আবদুল হান্নান, ইদ্রিস, মুসলেম উদ্দিন ও সাগর।

নিহত শাহানূর (২৫) আবদুস সালামের স্ত্রী।

জানা যায়, রেল কলোনি এলাকার যুবক এরশাদ ও সোহেলসহ তাদের অনুসারীরা দীর্ঘদিন ধরে অনৈতিক কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসছিল। শুক্রবার রাতে সোহেল ওই এলাকার এক নারীর ঘরে ঢোকেন। রোকসানা ও শাহানূর তাদের আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলায় তা নিয়ে বিরোধ সৃষ্টি হয়।

একপর্যায়ে তা নিয়ে দুটি পক্ষের মধ্যে রাতে সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়। এ সময় কয়েকজন আহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পুলিশ চলে যাওয়ার পর সোহেল ও এরশাদের নেতৃত্বে একটি দল শাহানূরের বাড়িতে হামলা চালায়। একপর্যায়ে শাহানূরকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় তারা। পরে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

নিহতের ভাই আবুল কালাম জানান, তাঁর বোন শাহানূর তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন।

নেত্রকোনা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। মামলা পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন :