ছেলের হাতে বিএনপি নেতা খুন, মায়ের মামলা

বগুড়ার নন্দীগ্রামে ছুরিকাঘাতে বিএনপি নেতা আনোয়ার হোসেনকে(৫০) হত্যার ঘটনায় ছেলে রনি আহমেদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।মা রেহেনা বেগম শুক্রবার ছেলের নামে নন্দীগ্রাম থানায় এ মামলা করেছেন। তবে বিকাল পর্যন্ত পুলিশ রনিকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

জানা গেছে, নন্দীগ্রাম পৌর বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেন তার মাদকাসক্ত ছেলে রনিকে কিস্তিতে দুটি হিউম্যান হলার কিনে দেন। রনি গত কয়েকমাস ধরে হিউম্যান হলার থেকে আয়ের টাকার হিসাব দেননি।

এ নিয়ে ছেলে রনির সঙ্গে বাবা আনোয়ার হোসেনের মতবিরোধ দেখা দেয়। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে নন্দীগ্রামের পূর্বপাড়ার বাড়িতে দুই জনের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়।

এক পর্যায়ে রনি ক্ষিপ্ত হয়ে ছুরি এনে বাবার পেটে ঢুকিয়ে দেন। ছুরিকাহত আনোয়ার ছুরি কেড়ে নিয়ে ছেলে রনিকে আঘাত করেন। রনি আবার ছুরি কেড়ে নিয়ে বাবাকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করেন।

স্বজনরা গুরুতর অবস্থায় বাবা ও ছেলেকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে দুপুর ১টার দিকে আনোয়ার হোসেন মারা যান। তার মৃত্যুর খবর পেয়ে আহত রনি হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান।

নন্দীগ্রাম থানার ওসি শওকত কবির জানান, নিহতের স্ত্রী রেহেনা বেগম শুক্রবার তার ছেলের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেছেন। আত্মগোপন করায় শুক্রবার বিকাল পর্যন্ত রনিকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।

তিনি আরও জানান, হিউম্যান হল্যার থেকে আয়ের টাকার হিসাব নিয়ে বিরোধে মাদকাসক্ত ছেলের ছুরিকাঘাতে বাবা খুন হয়েছেন।

মন্তব্য লিখুন :