রংপুরে অটো ছিনতাইয়ে নেমেছে নারীরা!

রংপুরে যাত্রী সেজে অটো রিক্সা ছিনতাইয়ে নেমেছে মহিলারাও। ওইসব মহিলারা যাত্রী সেজে অটোতে উঠতো। কৌশলে অটো চলককে নেশা জাতীয় কিছু খাইয়ে অজ্ঞান করে অটো নিয়ে চম্পট দিত।

শনিবার ওই চক্রের সদস্য রুমি বেগমকে (২৬)  আটক করেছে পুলিশ। রাত দেড়টার দিকে রংপুর থেকে অটো ছিনতাই করে পালানোর সময় কাউনিয়া থেকে তাকে আটক করে তাজহাট থানা পুলিশ।

আটককৃত রুমি বেগম মিঠাপুকুর উপজেলার পায়রাবন্দ মন্ডলপাড়া এলাকার কাবেজ আলীর মেয়ে।

পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, শনিবার রাত সাড়ে এগারোটার দিকে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন বীজ গবেষণা কেন্দ্রের রাস্তার পার্শ্বে অচেতন অবস্থায় এক ব্যক্তিকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরে রংপুর মেট্টোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার (অপরাধ) কাজী মুক্তাকী ইবনু মিনান এর নির্দেশে ছিনতাই হওয়া মোবাইল ফোনের নম্বর প্রযুক্তির সাহায্যে ট্রাক করা হয়। এতে ছিনতাই করে চক্রটি অটো নিয়ে রংপুর কুড়িগ্রাম মহাসড়কের দিকে যাচ্ছিল এমন তথ্য পেয়ে তাজহাট থানার ওসি শেখ রোকোনুজ্জামান ধাওয়া করে কাউনিয়া পুলিশের সহায়তায় কাউনিয়া মহাসড়কের রেলগেট এলাকা থেকে রুমি বেগমকে আটক করে ছিনতাই হওয়া অটো উদ্ধার করে। এ সময় ছিনতাইকারী চক্রের বাকী সদস্যরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়।  পরে চালক মাইদুল ইসলামের ভাই তাজহাট থানায় মামলা দায়ের  

তাজহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ রোকোনুজ্জামান বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামী দীর্ঘদিন হতে কৌশলে অটো ছিনতাই করছে স্বীকারোক্তি দিয়েছে। এই চক্রের অন্যান্য আসামীদের আটকের চেষ্টা অব্যাহত আছে বলে জানান তিনি।


মন্তব্য লিখুন :