অপরাধী যেই হউক তার পরিচয় সে অপরাধী: চিফ হুইপ লিটন

জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী লিটন এমপি বলেছেন, ‘অপরাধী যেই হউক তার পরিচয় সে অপরাধী। প্রশাসনের চোখের সামনে বাজারের ভেতরে যেখানে ইউএনও অফিস থেকে জানালা খুললে দেখা যায়, যেখানে ওসি সাহেবের চোখের সামনে, যেখানে নেতাদের অফিস আছে, সেখানে যদি এই ধরনের ধর্ষণ বা হত্যার মত ন্যাকারজনক ঘটনা ঘটতে পারে তাহলে গ্রামগঞ্জে কি ঘটবে।’

রবিবার সকালে মাদারীপুরের শিবচরের কাদিরপুর ইউনিয়নে বিএম দেলোয়ার হোসেন বেপারীর হাটে হযরত ইব্রাহিম খলিলউল্লাহ(আ:) জামে মসজিদের উদ্বোধন শেষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনটি সেতু, একাধিক উন্নয়নমুলক কাজ ও বৈদ্যুতিক লাইন শুভ উদ্ধোধনকালে তিনি বলেন, ‘পদ্মা সেতু আমাদের স্বপ্নের সেতু, এটা সম্পূর্ণ হওয়ার পরে সারা দেশের সাথে শিবচরেও একটা ভৌগলিক পরিবর্তন হয়ে যাবে। এখানে প্রায় ১৯শত কোটি টাকা ব্যয়ে শেখ হাসিনা তাঁত পল্লী হতে যাচ্ছে। এখানে বিদেশ থেকে মানুষ আসবে আমদানি করার জন্য। আমাদের বেকার সমস্যা দূর হবে। অর্থনীতির উন্নতি হবে। যা আমরা এখন উপলব্ধি করতে পারছিনা।’

পরে তিনি একটি মহিলা মাদরাসা পরিদর্শন করে ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ১ লাখ টাকা অনুদান দেন। বিকালে শিবচর উপজেলা পরিষদের মিটিং এ যোগদান করেন। মিটিং শেষে চৌধুরী ফাতেমা বেগম পৌর অডিটোরিয়ামে শিবচর উপজেলা পরিষদ কর্তৃক আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসাবে ইফতার ও দোয়া মাহফিলে অংশগ্রহণ করেন।

এ সময় তার সাথে ছিলেন মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার সুব্রত কুমার হালদার, জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মুনির চৌধুরী, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. শামসুদ্দিন খান, পৌর মেয়র আওলাদ হোসেন খান, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান রেজাউল করিম তালুকদার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসাদুজ্জামান, সহকারী পুলিশ সুপার (শিবচর সার্কেল) আবির হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আ. লতিফ মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. সেলিম, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জেল হোসেন খান (তোতা) প্রমুখ।

মন্তব্য লিখুন :