তরুণীকে হত্যার পর মরদেহকে ধর্ষণ

নরসিংদীর শিবপুর উপজেলায় প্রতিবন্ধী তরুণীকে হত্যার পর ধর্ষণ করার অভিযোগে সাইফুল ইসলাম (২৮) নামে এক বখাটেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১১।

বুধবার (১২ জুন) দুপুরে নরসিংদী প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এসব তথ্য জানায় র‌্যাব-১১।

র‌্যাব-১১-এর অধিনায়ক শমসের উদ্দিন বলেন, চলতি বছরের মার্চ মাসে শিবপুর উপজেলার মাছিমপুর গ্রামের প্রতিবন্ধী সাবিনা আক্তারের (২১) সঙ্গে একই উপজেলার দুলালপুর গ্রামের হানিফ ফকিরের ছেলে সাইফুল ইসলামের পরিচয় হয়। এরপর বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে সাবিনার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে সাইফুল ইসলাম। গত ৮ জুন বিয়ে করার কথা বলে সাবিনাকে বাড়ি থেকে কাজিরচর গ্রামের একটি কলাবাগানে নিয়ে যায়। সেখানে সাবিনার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করার চেষ্টা করে সে।

তিনি বলেন, কিন্তু বিয়ের আগে শারীরিক সম্পর্কে জড়াতে রাজি হয়নি সাবিনা। পরে সাবিনাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে সাইফুল। হত্যার পর সাবিনার মরদেহ ধর্ষণ করে। পরে সাবিনার মরদেহ কলাবাগানে ফেলে চলে যায়। মঙ্গলবার রাতে শিবপুর কলেজ গেট এলাকা থেকে ধর্ষক সাইফুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সাবিনাকে হত্যা ও মরদেহ ধর্ষণের কথা স্বীকার সে।

তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান র‌্যাব-১১-এর অধিনায়ক শমসের উদ্দিন।



মন্তব্য লিখুন :