ঝিনাইদহ থেকে প্রতিদিন ৫০ লাখ টাকার আম যাচ্ছে সারাদেশে

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে শহরে গড়ে উঠেছে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের বৃহত্তর আমের হাট। এখান থেকেই প্রতিদিন ল্যাংড়া, গোপালভোগ, হিমসাগর, বোম্বাইসহ দেশীয় বিভিন্ন জাতের প্রায় অর্ধকোটি টাকার আম রপ্তানি করা হচ্ছে দেশের বিভিন্ন স্থানে।

বর্তমানে দেশের বাইরেও আম রপ্তানির কথা ভাবছেন এখনকার আম ব্যবসায়ীরা। দেশের অন্য স্থানের তুলনায় এখানে আমের দাম কম হওয়ায় ব্যবসায়ীদের আগ্রহী বেশি।

স্থানীয় ব্যবসায়ীরা দাবি, আম সংরক্ষণের ব্যবস্থা করা হলে আমা চষিরা আরও বেশি লাভবান হত। তারা জানিয়েছেন, এখানকার আমে কোনো ফরমালিন বা ক্ষতিকর কেমিক্যাল মেশানো হয় না।

কোটচাঁদপুরের শহরের প্রবেশমুখেই ডাইভারশন রোডের আমের হাট। যেখানে রয়েছে কোটচাঁদপুর থানার নব নির্মিত ভবন ও কমিউনিটি সেন্টার।

জানা যায়, প্রতিদিন সকাল ৭টায় ঝিনাইদহ, কোটচাঁদপুর, মহেশপুর, চৌগাছা, ঝিকরগাছা, চুয়াডাঙ্গার জীবননগর, হাসাদহ, আলমডাঙ্গা, দামুড়হুদা এলাকার ব্যবসায়ীরা এই বাজারে আম নিয়ে আসেন বিক্রির জন্য।

এখান থেকে প্রতিদিন গড়ে ছোট-বড় ১০০ ট্রাক আম দেশের বিভিন্নস্থানে সরবরাহ করা হচ্ছে। এসব আম ঢাকা, বরিশাল, সিলেট, চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন শহরে পাঠানো হয়। এ ছাড়া বিভিন্ন কোম্পানি আমের জুস তৈরির জন্য এখান থেকে আম ক্রয় করে থাকে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কোটচাঁদপুর আম ব্যবসায়ীর সমিতির নেতা আব্দুল লতিফ জানান, এই বাজারে ল্যাংড়া ১ হাজার ৩০০ থেকে ১ হাজার ৫০০ টাকা মন, হিমসাগর ১০০০ থেকে ১৩০০ টাকা মণ, বোম্বায় ১৫০০ টাকা থেকে ১৬০০ টাকা পর্যন্ত বেচা-কেনা হচ্ছে।

এদিকে কোটচাঁদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজনিন সুলতানা জানান, তারা কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করছেন যাতে আমে বিষাক্ত কোন কেমিক্যাল ব্যবহার না করা হয়।

মন্তব্য লিখুন :