‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গাসহ নিহত ২

কক্সবাজারের টেকনাফে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা যুবকসহ দুজন নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন- আবদুর গফুর (৪০) ও মো. সাদেক (২৩)।

বিজিবির দাবি, নিহতরা ইয়াবা কারবারি। আবদুর গফুর টেকনাফের হ্নীলা জাদীমুরা এলাকার রোহিঙ্গা সুলতান আহম্মদের ছেলে ও মো. সাদেক কেরুনতলীর মো. শরীফের ছেলে।

শনিবার ভোরে টেকনাফ পৌর এলাকার কাইয়ুকখালী খালের মুখে এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে।এদিকে শুক্রবার রাতে হ্নীলা ইউনিয়নের দমদমিয়া ওমর খাল এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫ লাখ ৪০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট জব্দ করা হয়।

টেকনাফ-২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল ফয়সাল হাসান খান জানান, মিয়ানমার থেকে টেকনাফ পৌর এলাকার কাইয়ুকখালী খালের মুখ দিয়ে ইয়াবার বড় একটি চালান আসছে এমন গোপন খবর পাওয়া যায়।

এর ভিত্তিতে ভোর ৩টার দিকে বিজিবির একটি দল সেখানে অভিযান চালায়। এসময় বিজিবি সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়েই ইয়াবা চোরাকারবারীরা গুলি করে। আত্মরক্ষার্থে বিজিবিও পাল্টা গুলি চালায়।

এক পর্যায়ে গোলাগুলি থেমে যায়। পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে দুজনের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়।ঘটনাস্থল থেকে এক লাখ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।নিহত দুই মাদক কারবারীর মরদেহ ময়না-তদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে মিয়ানমার থেকে ইয়াবার চালান বাংলাদেশে ঢুকছে এমন গোপন খবর পেয়ে শুক্রবার রাতে হ্নীলা ইউনিয়নের দমদমিয়া ওমর খাল এলাকায় অভিযান চালায় বিজিবি।

এসময় কয়েকজনকে সন্দেহ হলে তাদের চ্যালেঞ্জ করা হয়। এসময় পাচারকারীরা একটি নৌকা ডুবিয়ে দিয়ে কেওড়া বনে পালিয়ে যায়। পরে ওই নৌকায় তল্লাশি চালিয়ে ৫ লাখ ৪০ হাজার পিস ইয়াবা পাওয়া যায়।

মন্তব্য লিখুন :