পাবনায় বজ্রপাতে নিহত ১, নদীতে পড়ে নিখোঁজ ১

পাবনার বেড়ায় যমুনা নদীতে নৌকায় ফেরার পথে বজ্রপাতে নৌকার এক মাল্লা নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় অপর একজন মাল্লা নদীতে পড়ে নিখোঁজ রয়েছেন।

রবিবার (১৪ জুলাই) সন্ধ্যা সাতটার দিকে উপজেলার নাকালিয়ায় মাঝ যমুনায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তির নাম ঈমান আলী (৫০)। সে রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার মৃত রফিকুল ইসলামের ছেলে। আর নিখোঁজ সাইফুল ইসলাম (৩০) নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার মৃত ছোলেমান আলীর ছেলে।

বেড়া উপজেলার হাটুরিয়া-নাকালিয়া ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুর রশিদ জানান, একটি শ্যালোইঞ্জিন চালিত নৌকা রাজশাহী থেকে আম ও কলা নিয়ে ঢাকার একটি আড়তে আনলোড করে পুনরায়  রাজশাহী ফিরে যাচ্ছিল। রবিবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে নাকালিয়া বাজারের সামনে মাঝ যমুনায় পৌঁছালে বৃষ্টির সাথে বজ্রপাত হয়। এতে নৌকার মাল্লা ঈমান আলী গুরুতর আহত হন এবং অপর মাল্লা সাইফুল ইসলাম যমুনা নদীতে পড়ে নিখোঁজ হন। স্থানীয়রা ঈমান আলীকে উদ্ধার করে বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বেড়া ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন অফিসার সোহেল আহম্মেদ ঘটনাস্থল থেকে জানান, নিখোঁজ ব্যক্তির ব্যাপারে খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে। সোমবার সকালে পাবনা থেকে ডুবুরী দল আসলে উদ্ধার অভিযান চালানো হবে।

বেড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসিফ আনাম সিদ্দিকীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।

মন্তব্য লিখুন :