পটিয়ায় বন্দুকযুদ্ধে ধর্ষণ মামলার আসামি নিহত

চট্টগ্রামের পটিয়ায় র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মোহাম্মদ আরমান (২৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (৩০ জুলাই) ভোর ৫টার দিকে পটিয়ার কুসুমপুরা ইউনিয়নের মেহেরআঁটি গ্রামে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

আরমান অষ্টম শ্রেণি পুড়য়া এক কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের মামলার আসামি ছিলেন। তার বাড়ি উপজেলার জিরি ইউনিয়নের মালিয়ারা গ্রামে।

র‌্যাবের চট্টগ্রাম জোনের সহকারী পরিচালক এএসপি কাজী মো. তারেক আজিজ জানান, গত ১৯ জুলাই রাত দেড়টার দিকে মালিয়ারা গ্রামের এক কিশোরী প্রকৃতির ডাকে ঘর থেকে বের হয়।

এ সময় এলাকার বখাটে হিসেবে পরিচিত আরমান তার মুখে শার্ট বেঁধে ধর্ষণ করে। এই ঘটনায় ওই কিশোরীর পরিবার থানায় মামলা দায়ের করে। এরপর থেকেই পলাতক আরমান।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভোরে কুসুমপুরার মেহেরআঁটি গ্রামে আরমানকে গ্রেপ্তারে অভিযান চালায় র‌্যাব। অভিযান টের পেয়ে আরমানের সহযোগীরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি করে।

র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। বেশকিছু সময় বন্দুকযুদ্ধের পর গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আরমানের লাশ উদ্ধার করে হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

ঘটনাস্থল থেকে একটি অস্ত্র, সাত রাউন্ড গুলি ও নয়টি গুলির খালি খোসা উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানান এই র‍্যাব কর্মকর্তা।

মন্তব্য লিখুন :