বান্দরবান-চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে সড়ক যোগাযোগ বন্ধ

টানা বর্ষণে পাহাড়ধস আর সড়ক ডুবে যাওয়ার কারণে সারা দেশের সঙ্গে পার্বত্য জেলা বান্দরবান ও কক্সবাজারের সাথে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

সোমবার (৮ জুলাই) বিকেলে জেলার কেরানী হাটের বাজালিয়ার বুড়ির দোকান অংশের সড়ক পানিতে তলিয়ে যায়। এরপরও ভারি যান চলাচল করছিল।

কিন্তু, মঙ্গলবার সকালে বাজালিয়া অংশে সড়কের উপর দিয়ে কয়েক ফুট উচ্চ পানি প্রবাহিত হচ্ছে। এর ফলে এ সড়কে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

অনেক অংশে প্রবল বর্ষণের ফলে পাহাড়ধসে সড়কে পড়েছে। বৃষ্টি অব্যাহত থাকায় সেগুলো সরানোও সম্ভব হচ্ছে না।

এদিকে, সাঙ্গু নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমা অতিক্রম করেছে। এখন সড়কের কয়েক ফুট উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে।

এতে সহস্রাধিক ঘরবাড়ি তলিয়ে গেছে। বান্দরবানের সঙ্গে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারে সড়ক যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। যান চলাচল বিঘ্নিত হচ্ছে বান্দারবান-রাঙ্গামাটি সড়কেও।

টানা বর্ষণে বান্দরবানের সাঙ্গু ছাড়াও মাতামুহুরী এবং বাঁকখালী নদীর পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। লামা উপজেলা সদর অংশেও মাতামুহুরী নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে কিছু এলাকা প্লাবিত হয়েছে।

বান্দরবানের জেলা প্রশাসক দাউদুল ইসলাম জানান, পাহাড়ধস ও জলাবদ্ধতায় ক্ষতিগ্রস্ত কয়েকশ পরিবারকে আশ্রয়কেন্দ্রে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। সেখানে তাদের যাবতীয় সহায়তা দেয়া হচ্ছে।

প্রাণহানি ঠেকাতে পাহাড়ের পাদদেশে বসবাসকারীদের সরিয়ে নেয়ার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

মন্তব্য লিখুন :