বগুড়ায় বিয়ের প্রলোভনে প্রতিবন্ধি কিশোরীকে ধর্ষণ

বগুড়ার শেরপুর উপজেলার বালান্দা গ্রামে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণের ঘটনায় সোহেল রানার (২৫) বিরুদ্ধে শেরপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়নের বালান্দা গ্রামের সাহেব আলীর প্রতিবন্ধী কিশোরী মেয়ের সাথে ধুনট উপজেলার এলাঙ্গী ইউনিয়নের রাঙামাটি (ফকিরবাড়ি) গ্রামের জাহেদ আলীর ছেলে সোহেল রানার মোবাইল ফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এক পর্যায়ে সোহেল রানা ওই প্রতিবন্ধী কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ৫ জানুয়ারি থেকে ঢাকার চান্দুরা এলাকায় বাড়ি ভাড়া করে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে বসবাসকালে সু-কৌশলে ধর্ষণ করে।

ওই প্রতিবন্ধী কিশোরী বিয়ের চাপ দিতে থাকলে সোহেল রানা বিয়ে করার আশ্বাস দিয়ে মেয়ের বাড়িতে ফিরে আসে এবং বিয়ের বাজার করার জন্য শেরপুর শহরে এসে লাপাত্তা হয়ে যায়। এ ঘটনায় ওই কিশোরী সোমবার রাতে অভিযুক্ত সোহেল রানা ও তার পিতা-মাতাসহ পাঁচ জনকে বিবাদী করে শেরপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হুমায়ুন কবীর এ প্রতিবেদককে বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য লিখুন :