মাইক্রো থেকে লাফ দিয়ে জীবন বাঁচায় সে

গাজীপুর থেকে অপহৃত এক স্কুলছাত্রীকে রাজশাহী থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়াও তার সঙ্গে যে দুইজন স্কুলছাত্রীকে অপহরণের কথা জানিয়েছিল তাদের পাওয়া গেছে।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের মতিহার থানার ওসি শাহাদত হোসেন খান জানান, তারা বাড়িতেই ছিলেন এবং বৃহস্পতিবার সকালে তারা স্কুলে যায়। স্কুলে গিয়ে পুলিশ তাদের পেয়েছে।

ওসি জানান, রাজশাহীতে উদ্ধার গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার মাওনা বহুমুখি উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগে স্থানীয় থানায় একটি মামলা হয়েছে। ওই ছাত্রীকে রাজশাহী ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে রাখা হয়েছে। শ্রীপুর থানার একজন পুলিশ কর্মকর্তাসহ পরিবারের সদস্যরা রাজশাহীর উদেশ্যে রওনা হয়েছেন। তারা আসলে উদ্ধার ছাত্রীকে তাদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

উল্লেখ্য, বুধবার রাত ৮টার দিকে রাজশাহী নগরের তালাইমারি এলাকা থেকে তাকে উদ্ধার করে পুলিশ। স্কুলে যাওয়ার পথে একটি মাইক্রোবাসে করে তাকে অপহরণ করা হয়েছিল। রাজশাহীতে মাইক্রোবাসটি থামলে গাড়ি থেকে লাফ দিয়ে পালিয়ে নিজেকে রক্ষা করে বলে উদ্ধার ওই ছাত্রী পুলিশকে জানায়।

সে পুলিশকে জানিয়েছিল, তার সঙ্গে আরও দুই ছাত্রী মেঘলা ও জুথিকেও অপহরণ করে ওই মাইক্রোবাসে তোলা হয়। এর পর তাদের অজ্ঞান করে দেয়া হয়েছিল।

রাজশাহীতে উদ্ধার স্কুলছাত্রীর নাম মিতা আক্তার বর্ষা (১৪)। সে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার শান্তিনগর গ্রামের মতিউর রহমানের মেয়ে। সে স্কুল ড্রেস পড়ে রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন :