গুরুদাসপুরে সন্তানকে ব্রিজ থেকে ফেলে দেওয়ার চেষ্টা, মা আটক!

নাটোরের গুরুদাসপুরে নিজের তিন বছরের শিশুকে হত্যার উদ্দ্যেশ্যে ব্রীজ থেকে ফেলে দেওয়ার চেষ্টার দায়ে মোছা. রওশন আরা (৪৮) নামের এক মাকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (১২ জুলাই) বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার পৌর সদরের চাঁচকৈড় বাজারের নন্দকুঁজা নদীর ওপর অবস্থিত রসুনহাটা ব্রিজে এ ঘটনা ঘটে।

আটক কৃত রওশনারা উপজেলার নারায়নপুর এলাকার মো.ইদ্রিস আলীর স্ত্রী। শিশুটির নাম কাজল কালো নিপা (৩)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার বিকেলে চাঁচকৈড় রসুন হাটা ব্রিজের ওপর দাঁড়িয়ে নদীতে তিন বছরের শিশু নিপাকে ফেলে দেওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিল রওশন। এ সময় লোকজন তাকে বাধা দেয়। পরে আটকে রেখে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ গিয়ে ওই শিশুকে উদ্ধার করে তার মাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

রওশন আরার ভাই মো. জাহিদুল ইসলাম বলেন, আমার বোন বিগত ৭-৮ বছর ধরে মানসিক ভারসাম্যহীনতায় ভুগছে। এর আগেও অনেকবার তার শিশু কন্যাকে হত্যা করার চেষ্টা করেছে। তার কাছ থেকে তার সন্তানকে কেউ চাইলেও দেয় না।

আটককৃত রওশনারাকে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, আমি তো রাক্ষস। শুধু মানুষ খাই। আমি আমার মেয়েকে নদীতে ফেলে দিলেও মরবে না এবং আগুনে পুড়ালেও পুড়বে না।

গুরুদাসপুর থানার এসআই রুবেল জানান, খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করে তার মাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে এসেছি। পরিবারের লোকজন বলছে শিশুটির মা ভারসাম্যহীন। সঠিক তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য লিখুন :