গুরুদাসপুরে নিজের বাল্যবিয়ে বন্ধ করে পুরস্কার পেল বিউটি

নাটোরের গুরুদাসপুরে নিজের ব্যাল্যবিবাহ বন্ধ করায় স্কুলছাত্রী বিউটি খাতুনকে (১৪) পুরস্কৃত করেছে গুরুদাসপুর উপজেলা প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার সকালে গুরুদাসপুর উপজেলা পরিষদ হলরুমে স্থানীয় সাংসদ আলহাজ্ব অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস, উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তমাল হোসেন, গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোজাহারুল ইসলাম, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা হাফিজুর রহমানসহ প্রমুখ উপস্থিত থেকে তার হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

স্কুল ছাত্রী বিউটি উপজেলার চাপিলা ইউনিয়নের ধানুড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী।

পুরস্কার হিসেবে স্কুলছাত্রীকে দুই হাজার টাকা মূল্যের প্রাইজবন্ড, সাহসীকতার সনদপত্র, বঙ্গবন্ধুর অসামাপ্ত জীবনী দেওয়া হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাল হোসেন বলেন, গত ২৮ জুলাই স্কুলছাত্রী বিউটির অমতে তার পরিবার বিয়ের আয়োজনের প্রস্তুতি নিচ্ছিল। স্কুলছাত্রী বুঝতে পেরে ওই রাত ১১টার দিকে তার বাবার মুঠোফোন থেকে ফোন করে এ বিয়ে বন্ধের আকুতি জানিয়েছিল স্থানীয় সাংসদকে এবং আমাকে। পরে তার বিবাহের আয়োজন বন্ধ করা হয় এবং তার পরিবারকে তার মেয়ের প্রাপ্ত বয়স না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দেওয়া শর্তে মুচলেকা নেওয়া হয়।

মেয়েদের উৎসাহ ও সচেতন হওয়ার জন্যেই বিউটি খাতুনকে এ সম্মাননা দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

মন্তব্য লিখুন :