সুবর্ণচরে এবার বিধবাকে অস্ত্রের মুখে গণধর্ষণ

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে আবারও গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এবার এক বিধবা নারীকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে গণধর্ষণ করেছে তিনজন।

রবিবার দুপুরে এ ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে তিনজনকে আটক করেছে চরজব্বর থানা পুলিশ। উপজেলার মোহাম্ম্দপুর ইউনিয়নের চর মুজাখালী গ্রামে ঘটে এ ঘটনা।

আটককৃতরা হলেন- ওই উপজেলার মোহাম্মমদপুর ইউনিয়নের নুর উদ্দিন (৪০) ,দেলোয়ার  মাষ্টার (৫০) ও নুরুল হুদা (৩৮)।

ভিকটিম জানায়, শনিবার গভীর রাতে মোহাম্মমদপুর ইউনিয়নের নুর উদ্দিন, দেলোয়ার  মাষ্টার ও নুরুল হুদা তার ঘরে প্রবেশ করে। পরে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে তাকে পালাক্রমে রাতভর ধর্ষণ করে। এতে বাধা দেওয়ায় তাকে মারধরও করা হয়। পরে রবিবার ভোরের দিকে তাকে ফেলে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা।

পরে সকালে আহত অবস্থায় ভিকটিমের পরিবার তাকে চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।  

এ বিষয়ে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক সৈয়দ মহি উদ্দিন আবদুল আজিম জানান, ধর্ষণের ঘটনায় এক নারী নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। ভর্তির পর তার প্রাথমিক পরীক্ষা করানো হয়েছে। মেডিকেল পরীক্ষার রিপোর্ট হাতে পেলে বলা যাবে এটা ধর্ষণ কিনা।  

চরজব্বর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাহেদ উদ্দিন জানান, বিধবা গৃহবধূকে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ৩ জনকে আটক করা হয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে।

এর আগে গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের ঘটনায় দেশজুড়ে তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়েছিল। এবার একই ঘটনা ঘটলো উপজেলাটিতে।

মন্তব্য লিখুন :