নিখোঁজ সাংবাদিক মুশফিক সুনামগঞ্জে উদ্ধার

নিখোঁজের তিন দিন পর মোহনা টেলিভিশনের বিশেষ প্রতিনিধি মুশফিকুর রহমানকে সুনামগঞ্জ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। 

মঙ্গলবার (৬ আগস্ট) ভোরে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কের গোবিন্দপুর এলাকায় তাকে পাওয়া যায়। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

গত শনিবার ঢাকার গুলশান এলাকা থেকে তিনি নিখোঁজ হন।

পুলিশ জানায়, মুশফিকুর রহমান ভোরে গোবিন্দপুর এলাকার মসজিদের সামনে যান। সেখানে থাকা এক মুসল্লির কাছের তিনি কোথায় আছেন জানতে চান। এরপর তার পরিচয় দেন। এ সময় স্থানীয় বাসিন্দারা মোহনা টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি কুলেন্দু শেখর দাসের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। পরে পুলিশ নিয়ে গিয়ে মুশফিককে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

হাসপাতালের চিকিৎসক নাসির উদ্দিন জানান, মুশফিককে বেশ মারধর করা হয়েছে। ব্যথা আছে। চোখে কোনো কিছু দেওয়া হয়েছিল। এ কারণে তিনি ঝাপসা দেখছেন। তবে বিশ্রাম নিলে এসব ঠিক হয়ে যাবে।

সুনামগঞ্জ সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জিন্নাতুল ইসলাম বলেন, আমরা ঢাকায় তার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। ঢাকা থেকে লোকজন আসছেন। তারা এলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এখন তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

এর আগে গত ২১ জুলাই মুশফিকুরকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছিল অজ্ঞাত ব্যক্তি। এ ঘটনায় ২২ জুলাই রাজধানীর পল্লবী থানায় লিখিত অভিযোগও করেন তিনি।

সাংবাদিক মুশফিক ঢাকার মিরপুরে থাকতেন। তার গ্রামের বাড়ি কুমিল্লা জেলার দাউদকান্দি উপজেলার চরগোয়ালি।

মন্তব্য লিখুন :