বগুড়ায় মাদক ব্যবসায়ীর হাতে মাদকাসক্ত খুন

বগুড়ায় পুলিশে ধরিয়ে দেওয়াকে কেন্দ্র করে মাদক ব্যবসায়ীর ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছে ভোলা (২৯) নামের এক ব্যক্তি। তবে পুলিশ বলছে, নিহত ভোলা মাদকাসক্ত ছিল।

বুধবার (৭ আগস্ট) দুপুরে শহরের সুলতানগঞ্জপাড়া সত্যপীর মাজার এলাকায় এ খুনের ঘটনা ঘটে। নিহত ভোলা পৌর এলাকার সুলতানগঞ্জপাড়ার দ্বীন মোহাম্মদের ছেলে।

জানা যায়, একই এলাকার রিকশাচালক মাহবুব হোসেনের ছেলে নাঈম পুলিশের তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী। সম্প্রতি নাঈমকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। কয়েকদিন আগে নাঈম জামিনে বের হয়। ভোলা পুলিশকে তথ্য দিয়ে ধরিয়ে দিয়েছে বলে নাঈমের সন্দেহ। এ নিয়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নাঈম ও ভোলার মধ্যে হাতাহাতি হয়। ওই সময় নাঈম ভোলাকে বলে আমার হাত থেখে তোর রক্ষা নেই।

হুমকি দেওয়ার ২৪ ঘন্টা না পার হতেই ঘাতক নাঈমের হাতেই মৃত্যু হয় ভোলার। বুধবার দুপুরে ভোলা তার বাড়ি থেকে বের হয় মহাস্থান হাটে যাওয়ার জন্য। কিন্তু ঘাতক নাঈম আগে থেকেই তার বাড়ির আশেপাশে ওত পেতে ছিল। ভোলা সত্যপীর মাজার এলাকায় যাওয়া মাত্রই পেছন থেকে নাঈম তাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নিয়ে যায় বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ভোলাকে মৃত ঘোষণা করেন।

উপশহর পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পুলিশ পরিদর্শক আব্দুল গফুর বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে পূর্ব শত্রুতার জের থেকে এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে। তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন :