চাঁদা না দেওয়ায় বলাৎকার করে ভিডিও ধারণ, অপমানে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলায় চাঁদা না দেওয়ায় এক ব্যক্তিকে বলাৎকারের পর ভিডিও ধারণ করে চাঁদাবাজরা। পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিলে তিনি লজ্জায় আত্মহত্যা করেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

তাঁর নাম জামাল উদ্দিন (৪৫)। তিনি শ্রীপুর উপজেলার তেলিহাটি টেপিরবাড়ী গ্রামের মৃত আহাদ আলীর ছেলে।

জানা যায়, কিছুদিন ধরে জামাল উদ্দিনের কাছে স্থানীয় চাঁন মিয়ার ছেলে সিয়াম, রইছ উদ্দিনের ছেলে সাদেক মিয়া, তাদের সহযোগী রনি, পিন্টু, সজল ও শাওনসহ কয়েকজন যুবক ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে আসছিলেন। ওই টাকা না দেওয়ায় রোববার বিকেলে অভিযুক্তরা জামাল উদ্দিনকে বাড়ি থেকে ডেকে পাশের বৃন্দাবন-বাদশাহ নগর সরকারি বনে নিয়ে যান। সেখানে ওই যুবকরা তাকে বলাৎকার করেন ও তা ভিডিও ধারণ করেন।

পরে ধারণ করা ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে সোমবারের মধ্যে দুই লাখ টাকা চাঁদা দিতে বলেন। চাঁদা দিতে না পারায় সন্ত্রাসীদের হুমকির পরিপ্রেক্ষিতে লোকলজ্জার ভয়ে জামাল উদ্দিন ঘরের বারান্দার আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। দুপুরে প্রতিবেশীরা জামাল উদ্দিনের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায়।

শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. নয়ন ভুঁইয়া জানান, এ ঘটনায় আত্মহত্যায় প্ররোচণার অভিযোগে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্তরা পলাতক রয়েছেন।

মন্তব্য লিখুন :