ছেলেকে বাঁচাতে নদীতে ঝাপ দিয়ে ২ দিন ধরে নিখোঁজ বাবা

ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার বিষখালী নদীতে মাছ ধরার সময় নৌকা থেকে পড়ে যাওয়া ছেলেকে বাঁচাতে নদীতে ঝাপ দেন বাবা। তবে ছেলেকে স্থানীয় জেলেরা নদী থেকে উদ্ধার করায় সে প্রাণে বেঁচে যায়। কিন্তু ২ দিন ধরে নিখোঁজ র‍্যেছেব বাবা। 

নিখোঁজ জেলে লিটন সিকদারের সন্ধানে সোমবার (১৯ আগস্ট) সকাল থেকে নদীতে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল উদ্ধার কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। 

নিখোঁজ লিটন সিকদার (৩৬) উপজেলার চাঁনপুরা গ্রামের আবদুল আজিজ সিকদারের ছেলে। 

ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়রা জানায়, চাঁনপুরা গ্রামের লিটন সিকদার তার ছয় বছর বয়সের ছেলে রামিন সিকদারকে নিয়ে রবিবার বিকেলে ইলিশ মাছ ধরার জন্য নৌকায় করে বিষখালী নদীতে যায়। মাঝ নদীতে জাল টেনে ওঠানোর সময় রামিন নদীতে পড়ে যায়। ছেলেকে উদ্ধারের জন্য বাবা নদীতে ঝাপ দেয়। 

এ ঘটনা দেখে অন্য জেলেরা এসে ছেলেকে উদ্ধার করতে পারলেও বাবা নদীতে ডুবে নিখোঁজ হয়। সোমবার সকালে নদী তীরে বাবাকে খুঁজতে এসে কান্নায় ভেঙে পড়ে ছেলে রামিন সিকদার ও স্ত্রী শাহিনুর বেগম। 

প্রতিবেশী জেলে খোকন খান বলেন, ছেলে এবং বাবা দুইজনেই ডুবে যাচ্ছেন দেখে আমরা দ্রুত তাদের নৌকার কাছে আসি। ছেলেকে নদী থেকে উদ্ধার করতে পারলেও বাবাকে খুঁজে পাইনি। নিখোঁজ জেলের স্ত্রী শাহিনুর রবগম বলেন, আমার স্বামী বিভিন্ন হাটবাজারে তরকারি বিক্রির কাজ করেন। নদীর তীরে বাড়ি হওয়ায় মাঝে মধ্যে ইলিশ মাছ ধরতেন। 

রবিবার বিকেলে ছেলেকে নিয়ে মাছ ধরতে যায় সে। ছেলে নৌকা থেকে নদীতে পড়ে গেলে, তাকে উদ্ধারের জন্য নদীতে ঝাপ দেয় লিটন। লিটনকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। আমার ছেলেকে অন্য জেলেরা উদ্ধার করেছে। 

নলছিটি ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন জানান, খবর পেয়ে সোমবার সকালে ফায়ার সার্ভিসের একদল ডুবুরি নদীতে উদ্ধার চালাচ্ছেন। তবে নদীতে জোয়ার থাকায় এখনো নিখোঁজ জেলের সন্ধান পাওয়া যায়নি।

মন্তব্য লিখুন :