গোবিন্দগঞ্জে চা খাওয়াকে কেন্দ্র করে মারপিট, শ্রমিক নিহত

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের মারপিটে আকালু শেখ নামের এক কুলি শ্রমিক নিহত হয়েছে।

সে গোবিন্দগঞ্জ পৌর এলাকার বুজরুক বোয়ালিয়ার প্রধান পাড়ার কছের উদ্দিনের ছেলে। সে থানা মোড়ে কুলি শ্রমিকের কাজ করত।

নিহতের পরিবার ও স্থানীয়রা জানায়, গত ১৭ আগষ্ট শনিবার গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভার হীরক মোড়ে একটি দোকানে চা খাওয়ার সময় চা দোকানীর সাথে কথার কাটাকাটির এক পর্যায়ে চা দোকানীর কয়েকজন মাদকাসক্ত সহযোগী আকালু শেখকে বেদম মারপিট করলে সে গুরুতর আহত হয়। আহত আকালুকে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে গোবিন্দগঞ্জ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে। গত সোমবার আকালুর অবস্থা আশংকাজনক হলে কর্তব্যরত ডাক্তার উন্নত চিকিৎসার জন্য অন্যত্র রেফার করে।

নিহতের স্বজনরা তাকে বগুড়ার ঠেঙ্গামারা রফাতুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার রাত ৯টার দিকে আকালু শেখ মারা যায়। স্বজনরা আকালুর লাশ নিজ বাড়ীতে নিয়ে আসলে খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় গোবিন্দগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে নিহতের স্বজনেরা জানান।

এ বিষয়ে গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি (তদস্ত) আফজাল হোসেন  জানান, এ ঘটনায় থানায় এখনও মামলা দায়ের হয়নি। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য গাইবান্ধা মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন :