অবশেষে হবিগঞ্জের খোয়াই নদীতে উচ্ছেদ অভিযান শুরু

হবিগঞ্জবাসীর বহু কাঙ্খিত পুরোনো খোয়াই নদীর অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদে অভিযান শুরু হয়েছে।

সোমবার সকাল ১১টা থেকে মাহমুদাবাদ এলাকা থেকে উচ্ছেদ কার্যক্রম শুরু করা হয়। প্রথম দিনে ডায়াবেটিক হাসপাতালের পেছন থেকে প্রতিবন্ধী স্কুল পর্যন্ত অভিযান চালানো হয়।

উচ্ছেদ অভিযানে নেতৃত্ব দেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাসুদ রানা ও সহকারী কমিশনার ইয়াছিন আরাফাত রানা।

মাসুদ রানা জানান, উচ্ছেদ কার্যক্রম নিয়মিত কার্যক্রমের একটি অংশ। হবিগঞ্জবাসীর দীর্ঘদিনের একটি দাবি পুরাতন খোয়াই নদী উদ্ধার। আমরা সবার সহযোগিতায় এ কার্যক্রমে এবার হাত দিয়েছি। আশা করছি সবার সহযোগিতায় এটি সুন্দরভাবে সম্পন্ন করতে পারবো।

এদিকে উচ্ছেদের খবর পেয়ে অনেকেই নিজ উদ্যোগে নিজেদের স্থাপনা ভেঙে ফেলছেন। সরকারি উদ্যোগে ভাঙলে জরিমানা গুনতে হবে এ আশংকায় তারা নিজ উদ্যোগেই নিজেদের স্থাপনা ভেঙে নিচ্ছেন।

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরে জেলা শহরবাসী নদীটি উদ্ধারের দাবিতে বিক্ষোভ, মানববন্ধনসহ আন্দোলন করেছেন। বিভিন্ন সময় জাতীয় পর্যায়ের পরিবেশ আন্দোলনকারী নেতৃবৃন্দও এসে সংহতি প্রকাশ করেছেন।

হবিগঞ্জ জেলা শহরকে বন্যার কবল থেকে রক্ষা করতে ১৯৭৭-৭৮ সালে মাছুলিয়া থেকে কামড়াপুর পর্যন্ত স্বেচ্ছাশ্রমে নদীর গতিপথ পরিবর্তন করা হয়। এরপর থেকে নদীর পুরোনো অংশটি পরিত্যক্ত হয়ে পড়লে তা দখল করে নেয় স্থানীয় বাসিন্দারা। এতে অস্তিত্ব হারিয়ে ফেলে নদীটি। নদীতে গড়ে তোলা হয়েছে স্কুল, উপাশনালয়সহ বিশাল অট্টালিকা।

মন্তব্য লিখুন :