সময় পেলেই বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ে ক্লাস নেন গুরুদাসপুরের ইউএনও

সপ্তাহের প্রত্যেক শনিবার উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কিত বিষয় নিয়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে পাঠদান করান নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তমাল হোসেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কে নতুন প্রজন্মদের অবগত করতেই তার এই ক্ষুদ্র প্রয়াস।

সপ্তাহের বাকি দিন গুলো দাপ্তরিক কাজে ব্যাস্ত থাকার কারণে শনিবার ছুটির দিনই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ক্লাস নেওয়ার জন্য বেছে নিয়েছেন এই সরকারি কর্মকর্তা।
এছাড়া বিভিন্ন কাজের মধ্যে একটু সময় পেলেই তিনি ছুটে যান উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে।

শনিবার সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত উপজেলার ধারাবারিষা ইউনিয়নের ধারাবারিষা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের, পরে মশিন্দা ইউনিয়নের হাঁসমারী মডেল উচ্চ বিদ্যালয় ও বিয়াঘাট ইউনিয়নের দুর্গাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পাঠদান করান তিনি।

এসময় তিনি শ্রেণিকক্ষে শিক্ষার্থীদের মাঝে সংক্ষিপ্ত সময় নিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করেন।

ধারাবারিষা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শের-ই আলম বলেন, ইউএনও স্যারের সৃজনশীল বুদ্ধিদিপ্ত কাজে উপজেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা ক্লাশে মনোযোগের পাশাপাশি নিয়মিত উপস্থিত থাকছেন। এটা একটা ভালো উদ্যোগ। এ কাজকে এলাকার সুধিমহল ও শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা সাদরে গ্রহণ করছেন।

দুর্গাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শাওন, বেবী ও রিতা মনিসহ বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জানান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয় সম্পর্কিত অনেক কিছু আমরা এই ক্লাসের মাধ্যমে জানতে পেরেছি। এই সম্পর্কিত একটি ক্লাস নিয়মিত করানো হলে আমরা বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয় সম্পর্কিত সঠিক ইতিহাস জানতে পারবো।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার তমাল হোসেন জানান, আমি বাংলাদেশ ইন্ডিপেডেন্ট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইলেক্ট্রনিক প্রকৌশল বিষয়ে অর্নাসসহ মাষ্টার্স করেছি। বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরতেই দাপ্তরিক কাজ শেষে প্রতি শনিবার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক পাঠদান করাই শিক্ষার্থীদের মাঝে। কেননা নতুন প্রজন্মকে এ সকল বিষয়গুলো জানতে হবে। তাদের মাঝে সঠিক ইতিহাস না পৌঁছাতে পারলে নতুন প্রজন্ম আমাদের ক্ষমা করবে না। তাই আমার এই ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা।

মন্তব্য লিখুন :