পুরুষ শূন্য সাজিমারা গ্রাম!

জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলার স্থানীয় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে মারধরের ঘটনাকে কেন্দ্র করে পুলিশী গ্রেপ্তার এড়াতে পুরুষ শূন্য হয়ে পড়েছে সাজিমারা গ্রাম।

মঙ্গলবার (৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ওই গ্রামে সরেজমিনে গেলে কোনো পুরুষ মানুষের দেখা মিলেনি।

জানা যায়, গত ২৯ আগস্ট উপজেলার নীলাখিয়া ইউনিয়নের সাজিমারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি পদে প্রার্থী সাবেক ইউপি সদস্য হামিদুর রহমান ফর্সা বিদ্যালয়ে হামলা চালিয়ে প্রধান শিক্ষক আফরোজা সুলতানা বীনাকে স্কুলের একটি কক্ষে নিয়ে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে হাত ভেঙ্গে দেন। 

ওইদিন রাতে ফর্সা মেম্বারকে প্রধান আসামি দিয়ে অজ্ঞাত ১২ জনের বিরুদ্ধে বকশীগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেন নির্যাতিত প্রধান শিক্ষক আফরোজা সুলতানা বীনা।

এ ঘটনাটির খবর বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ হলে ওইদিন সন্ধ্যায় হামলার সাথে জড়িতদের গ্রেপ্তার করেত চিরনি অভিযানে নামে পুলিশের একাধিক দল।

এতে অংশ নেয় বকশীগঞ্জ ও ইসলামপুর থানার পুলিশের একাধিক দল।

ইসলামপুর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, আমরা স্কুল শিক্ষিকাকে মারধরের সাথে জড়িতদের আটক করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। 

বকশীগঞ্জ থানার ওসি একেএম মাহবুবুল আলম জানান, গত ৩১ আগস্ট হামলার সাথে জড়িত থাকায় সাজু মোল্লা ও আব্দুল করিম মোল্লা নামে দুইজনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের পরদিন ১ সেপ্টেম্বর দুপুরে জামালপুর আদালতে হাজির করলে সংশ্লিষ্ট বিচারক তাদের কারাগারে পাঠনোর আদেশ দেন।

ওদিকে গত ১ সেপ্টেম্বর বিকালে বিদ্যালয়ে হামলা চালিয়ে প্রধান শিক্ষক বীনাকে পিটিয়ে হাত ভেঙ্গে দেয়ার মুল হোতা সাবেক  ইউপি সদস্য হামিদুর রহমান ফর্সাসহ সকল আসামিকে দ্রুত সময়ের মধ্যে গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষকরা।

বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি বকশীগঞ্জ উপজেলা শাখার ব্যানারে আয়োজিত উপজেলা পরিষদের সামনে বকশীগঞ্জ-কামালপুর সড়কে প্রায় ঘন্টাব্যাপী অনুষ্ঠিত ওই মানববন্ধনে আগামী ৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে দোষীদের গ্রেপ্তার করা না হলে ৬ সেপ্টেম্বর এক ঘন্টা কর্মবিরতি এবং ১৫ তারিখের মধ্যে আসামিদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় না আনা হলে ১৬ সেপ্টেম্বর ৮ ঘন্টা কর্মবিরতিসহ বিভিন্ন কর্মসূচী ঘোষণা করেন শিক্ষক নের্তৃবৃন্দ।

স্থানীয় নারীরা জানান, পুলিশ প্রতিনিয়ত আমাদের বাড়িতে আসছে। অথচ আমরা ঘটনার সাথে কোনো ভাবেই জড়িত নয়।

মন্তব্য লিখুন :