ডোমার সরকারি কলেজে শিক্ষককে পেটাল ছাত্ররা

নীলফামারীর ডোমার সরকারি ডিগ্রী মহাবিদ্যালয়ের কয়েকজন ছাত্র ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক সোলাইমান আলীকে মারধর করেছে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় কলেজে শিক্ষকদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে।

শনিবার দুপুরে কলেজ প্রাঙ্গনে এই ঘটনাটি ঘটে।

কলেজের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক আব্দুল মালেক জানান, শনিবার দুপুরে ক্লাস চলাকালীন প্রথম বর্ষের ছাত্র সফিকুল আনাম অভিযোগ করেন একই ক্লাসের মুন্না তাকে মারধর ও কলেজ না আসার হুমকি দিয়েছে। আমি এ সময় কলেজে অবস্থানরত শিক্ষক সোলায়মানকে নিয়ে ওই ছাত্রের সন্ধানে ভবনের তৃতীয় তলায় গেলে বখাটে ছাত্ররা শিক্ষক সোলাইমানকে মারতে মারতে তিনতলা থেকে নিচে একাডেমিক ভবনে নিয়ে আসে। এ সময় আমি তাকে রক্ষায় এগিয়ে আসলে বখাটে ছাত্ররা আমার গায়েও হাত তুলে।

কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ রবিউল করিম জানান, কলেজের কিছু বখাটে ছাত্র আমাদের শিক্ষকের গায়ে হাত তুলেছে যা অত্যন্ত লজ্জাজনক। এর আগে দুইমাস পূর্বে কলেজপাড়ার লিটন রহমানের ছেলে প্রথম বর্ষের ছাত্র শান্ত রহমান শিক্ষকদের সাথে খারাপ ব্যবহার করায় তাকে আমরা বহিস্কারের সিদ্ধান্ত নিলেও সেই দফায় সে বেচে যায়। আজও ছাত্র/ছাত্রীদের মুখে জানতে পারি তার নেতৃত্বেই শিক্ষককে মারধর করা হয়েছে।

বর্তমানে প্রভাষক সোলায়মান হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলেও তিনি জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে বখাটে কঠোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে বলেও তিনি জানান।

শিক্ষক সোলায়মানের সাথে মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে ফোন বন্ধ থাকায় তার বক্তব্য জানা যায়নি।

মন্তব্য লিখুন :