শিক্ষা কর্মকর্তা দাবি করে সহকারী শিক্ষকের অভিনব প্রতারণা

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় অভিনব কৌশলে প্রতারণা করতে এসে এক ভুয়া শিক্ষা কর্মকর্তা আটক হয়েছেন।

ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলার শেখপাড়া রাহাতন নেছা গার্লস স্কুল এন্ড কলেজে।

প্রতিষ্ঠান প্রধান মাসুদ করিম জানান, বৃহস্পতিবার তার স্কুলে তারিক আজিজ নাম পরিচয় দিয়ে এক ব্যক্তি পরিদর্শনে আসেন। তিনি নিজেকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নিরীক্ষা কর্মকর্তা বলে দাবি করেন। শনিবার সকালে রাহাতন নেছাসহ বাকাই সিদ্ধি, বসন্তপুর সম্মিলনী ও বসন্তপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন করবেন এবং এ সকল স্কুল প্রধানদের প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ রাহাতন নেছা স্কুলে উপস্থিত থাকতে বলে চলে যান।

তিনি বলেন, শনিবার সকালে তিনি পুনরায় এসে এ সকল বিদ্যালয়ের কাগজপত্র হাতে নিয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সন্তুটির জন্য খরচের টাকা দাবি করেন। শনিবার অফিস বন্ধ থাকায় ও তার আচার আচরণে সন্দেহ হলে উপস্থিত বিদ্যালয়ের শিক্ষকগণ কৌশলে তাকে আটকে রাখে। পরে গোপনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট খোঁজ খবর নিয়ে তারা শৈলকুপা থানা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ এসে জিজ্ঞাসাবাদের পর তাকে থানায় নিয়ে যায়।

পুলিশ জানায়, আটককৃত ব্যক্তির নাম ও পরিচয় ভুয়া। প্রকৃতপক্ষে তার নাম মনিরুল ইসলাম। সে কুষ্টিয়া মিরপুর উপজেলার অঞ্জনগাছী গ্রামের সোহরাব হোসেনের ছেলে। এছাড়াও তিনি মিরপুর কাকিলাদহ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বলে স্বীকার করেছেন।

মন্তব্য লিখুন :