সুনামগঞ্জে বিয়ের দাওয়াত খেয়ে অসুস্থ ৯৬, এক নারীর মৃত্যু

সুনামগঞ্জে বিয়ের দাওয়াত খেয়ে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীর সংখ্যা ৯৬ জনে দাঁড়িয়েছে। এরমধ্যে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎিসাধিন অবস্থায় জলি রাণী দেব (৩৫) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার বিকালের দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান জলি। তিনি সুনামগঞ্জ শহরের ওয়েজখালী এলাকার সঞ্জু দেবের স্ত্রী।

সুনামগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি)শহিদুল ইসলাম মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, বুধবার রাতে সুনামগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জন আশুতোষ দাসের ভাতিজি সদর উপজেলার মোল্লাপাড়া ইউনিয়নের শাধদপুর গ্রামের মৃত প্রাণেশ তালুকদারের মেয়ে চন্দনা তালুকদারের সাথে দিরাই উপজেলার তাড়ল ইউনিয়নের ডাইয়ারগাঁও গ্রামের মিহির তালুকদার বিয়ে হয়। বিয়ের রাতে খাবারের মেনুতে ছিল মাছ, মুরগীর মাংস ও দই। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বর ও কনে পক্ষের লোকজন সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ও দিরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হতে থাকে পেটে যন্ত্রণা নিয়ে। এ সংক্রান্ত সমস্যা নিয়ে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি হন মোট ৫৬জন।

এদিকে একই ঘটনায় বর পক্ষের প্রায় ৪০ জন দিরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছেন। তার মধ্যে ৮ জনের অবস্থার অবনতি হলে তাদেরকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।এছাড়া শুক্রবার রাত পর্যন্ত ৭ জন সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক রফিকুল ইসলাম বলেন, খাবার হজম না হওয়ায় এবং ফুড পয়েজনিং থেকে এই সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে। আমরা সার্বক্ষণিক হাসপাতালে আছি। কারো অবস্থার অবনতি দেখলেই তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে। বিকালে দুইজনকে সিলেট পাঠানো হয়েছে।

সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতাল পরিদর্শন করেছেন। এ সময়ে নেজারত ডেপুটি কালেক্টর আসিফ আল জিনাত, সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক রফিকুল ইসলাম, ডিউটি অফিসার সালাহ উদ্দিনসহ হাসপাতালের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য লিখুন :