হাতিয়ায় বেড়িবাঁধ ভেঙে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

ঘূর্ণিঝড় আমফানের প্রভাবে অস্বাভাবিক জোয়রের পানিতে নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার নদীর তীরবর্তী চারটি ইউনিয়নের বেড়িবাঁধ ভেঙে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।

বুধবার (২০ মে) দুপরের পর থেকে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে হাতিয়ার সুখচর, নলচিরা, চরঈশ্বর ও নিঝুমদ্বীপের নদীর তীরের বেড়িবাঁধ ভেঙে প্রায় ২০টি গ্রাম প্লাবিত হয়ছে। দুপুর ১টার পর থেকে এসব এলাকা জোয়ারের পানিতে প্লাবিত হতে থাকে। তবে গত বছর বর্ষা মৌসুমে ভেঙ্গে যাওয়া বেড়িবাঁধ মেরামত না করায় খুব সহজে জোয়ারের পানিতে এসব এলাকা প্লাবিত হয়ে যায়।

চরঈশ্বর ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান রাশেদ উদ্দিন জানান, প্রায় ৫শতাধিক পরিবারের ঘরবাড়ী একেবারে জোয়ারের পানিতে ভেসে গেছে। দ্রুত এসব বেড়িবাঁধ মেরামত করা না হলে কয়েকদিন পর আবার প্লাবিত হবে।

এ ব্যাপারে হাতিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: রেজাউল করিম জানান, বেড়িবাঁধ ভেঙে প্লাবিত এলাকার লোকজনকে দ্রুত আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে আসার চেষ্টা চলছে।