ময়মনসিংহে জুয়া খেলার সময় পুলিশের উপ পরির্দশকসহ গ্রেপ্তার ২৭

ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) অভিযান চালিয়ে ২৭ জুয়াড়িকে গ্রেফতার করেছে। এরমধ্যে জামালপুরে কর্মরত এক পুলিশ সদস্য ও অপর একজন পুলিশ কর্মকর্তার ভাই রয়েছে। এ সময় তাদের কাছ থেকে জুয়া খেলার সামগ্রী উদ্ধার করে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২ জুন) ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা শাখার পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

এর আগে সোমবার (০১ জুন) বিকালে ত্রিশাল উপজেলা সদরের বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন গুলশান সিনেমা হলের পরিত্যক্ত বিল্ডিংয়ের তৃতীয় তলায় জুয়ার আসর থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন- পুলিশের উপ পরিদর্শক সাদির উদ্দিন, এক পুলিশ কর্মকর্তার ভাই জুয়েলসহ জাকির হোসেন, আরমান উল্লাহ ওরফে আমান, শরীফুল ইসলাম জনি, কামরুল ইসলাম, আনিছুর রহমান স্বপন, রফিকুল, মমিন মিয়া, শাখাওয়াত হোসেন রাসেল, জজ মিয়া, কামাল হোসেন, সাহাব উদ্দিন, হুমায়ুন কবির, শেখ মিরাজ, চানু, হারুন, রমজান আলী, আক্কাছ আলী, আবুল কালাম, সুরুজ, আক্তার, মোস্তাফিজুর রহমান, শহিদুল, নারায়ণ ঘোষ, মান্নান, আ. রশিদ।

জেলা গোয়েন্দা শাখা পুলিশের ওসি শাহ কামাল আকন্দ জানান, পুলিশ সুপারের কঠোর নির্দেশে ডিবি পুলিশ নিয়মিত জুয়া বিরোধী অভিযান পরিচালনা করছে। এরই অংশ হিসাবে গোপন সূত্রের ভিত্তিতে ত্রিশালের বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন গুলশান সিনেমা হল নামক পরিত্যক্ত বিল্ডিংয়ের তৃতীয় তলায় অভিযান চালিয়ে ২৭ জুয়াড়িকে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি আরও বলেন, গ্রেফতার হওয়াদের বাড়ি ময়মনসিংহের ত্রিশালসহ আশপাশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায়। এদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়ের করার পর মঙ্গলবার (২ জুন) দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।