অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে প্রাণ গেল শ্রমিকের

কর্মস্থল থেকে ট্রাকযোগে বাড়ি ফেরার পথে অজ্ঞান পাটির খপ্পরে পড়ে চার শ্রমিক সর্বস্ব হারিয়েছে।

বুধবার সকালে বগুড়া-নওগাঁ আঞ্চলিক মহাসড়কের আদমদীঘির ঢাকা রোড নামক স্থানে অচেতন অবস্থায় রাস্তার পাশে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দিলে তাদের উদ্ধার করে আদমদীঘি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে পুলিশ। চারজনের মধ্যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকেলে অজ্ঞাত এক ব্যক্তি (৪১) মৃত্যু হয়।

পরে অসুস্থ তিনজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

চিকিৎসাধীন একজন বলেন, গত মঙ্গলবার রাতে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর এলাকায় একটি সিমেন্টবোঝাই ট্রাকে অচেনা এক ব্যক্তিসহ তারা চার শ্রমিক বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হন। রাস্তামধ্যে সিরাজগঞ্জের পাপিয়া হোটেলে রাতের খাওয়ার পর অচেনা ওই ব্যক্তি তাদের চার জন শ্রমিককে সেভেন আপ খাওয়ান। এরপর তারা ট্রাকে ওঠার পর ক্রমে অচেতন হতে থাকে। তারপর তাদের কাছ থাকা চারটি মোবাইল ফোন, ১০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়ে তাদের আদমদীঘির ঢাকা রোড নামক স্থানে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।

তিনি জানান, পরের দিন বুধবার সকালে রাস্তার পাশে অচেতন অবস্থায় চার শ্রমিককে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দিলে তাদের উদ্ধার করে আদমদীঘি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকাল ৪টায় অজ্ঞাত এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়।

আদমদীঘি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জালাল উদ্দীন বলেন, চিকিৎসাধীন অবস্থায় নিহত অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল মর্গে আছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।