ক্যাচ মিসের কড়া মাশুল দিল টাইগাররা

পরপর তিনটি ক্যাচ মিসের কড়া মাশুল দিয়েছে বাংলাদেশ। এই ক্যাচ মিসের কারণে সাকিব আল হাসানের রেকর্ড তো হাতছাড়া হয়েছেই সেইসাথে আয়ারল্যান্ড গড়েছে বিশাল স্কোর।

বুধবার ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম রাউন্ডের শেষ ম্যাচে ৮ উইকেট হারিয়ে আয়ারল্যান্ড তুলেছে ২৯২ রান। টাইগারদের জিততে চাই এখন ২৯৩।

তবে দিনের শুরুটা ভালোই হয়েছিল টাইগারদের। দলে সুযোগ পেয়েই বাজিমাত করেন রুবেল হোসেন। এ তারকা ত্রিদেশীয় সিরিজের শেষ ম্যাচে আগে ব্যাট করতে নামা আয়ারল্যান্ড ওপেনার জেমস ম্যাককলামকে ফিরিয়ে দেন মাত্র ৫ রানে।

১১তম ওভারে দ্বিতীয় আঘাতটি হানেন রাহী। তার সুইংয়ে সম্পূর্ণ পরাস্ত হয়ে মুশফিকুর রহিমের কাছে ক্যাচ তুলে দেন বলবিরনি। এরপর প্রতিরোধ গড়ে তোলেন পল স্টার্লিং ও উইলিয়াম পর্টারফিল্ড।

যদিও তাদের প্রতিরোধ বেশিক্ষণ টেকার কথা ছিল না। তবে ২০, ২১ ও ২২ ওভারে পরপর তিনটি ক্যাচ মিস হয় তাদের। প্রথমে সাব্বির রহমান ও পরে সাইফুদ্দিন ক্যাচ ছেড়ে দেন পর্টারফিল্ডের। এরপর স্টার্লিংয়ের ক্যাচ ছাড়েন সাকিব।

নতুন জীবন পেয়ে ভয়ঙ্কর হয়ে উঠেন এই দুই ব্যাটসম্যান। মারমুখি হয়ে দরকে এগিয়ে নিতে থাকেন বড় সংগ্রহের দিকে। ৩৫তম ওভারে এসে ৯৪ রানের সময় পর্টারফিল্ডকে ফিরিয়ে এই জুটি ভাঙেন রাহী। তবে ততক্ষণে যা হওয়ার তা হয়ে গেছে। আয়ারল্যান্ডের স্কোর তখন ২৩৩।

আর এই জুটির সংগ্রহ ১৭৩। এরপর একে একে রাহী ফেরান আরও তিনজনকে। তবে এরই মাঝে টাইগারদের তুলোধুনা করতে থাকে আয়ারল্যান্ডের ব্যাটসম্যানরা। যার মধ্যে সাকিবের করা ৪৬তম ওভারে আসে ২৩ রান। শেষ অবধি তাদের ইনিংস থামে ৮ উইকেটে ২৯২ রানে। শেষ ওভারে ২ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন সাইফুদ্দিন।

পল স্টার্লিং ১৪২ বলে ৮ চার আর ৪ ছয়ে করেন ১৩০ রান। পর্টারফিল্ড ১০৬ বলে করেন ৯৪ রান। এ সময় তিনি ৭টি চার আর ২টি ছয়ের মার মারেন। বাংলাদেশের হয়ে ৯ ওভারে ৫৮ রান দিয়ে ৫ উইকেট নেন আবু জায়েদ রাহী।

মন্তব্য লিখুন :