রাঙামাটিতে তিন দিনব্যাপী জুম সংস্কৃতি মেলা শুরু

পার্বত্য চট্টগ্রামে আদিবাসী সম্প্রদায়ের প্রধান সামাজিক উৎসব বিজু, বৈসুক, সাংগ্রাই,বিহু ও বিষুকে কেন্দ্র করে গতকাল রোববার থেকে রাঙামাটিতে তিন দিনব্যাপী জুম সংস্কৃতি মেলা শুরু হয়েছে।

বিকেল সাড়ে চারটায় জুম ইসথেটিকস কাউন্সিলের (জাক) উদ্যোগে রাঙামাটি ক্ষুদ্র নৃ–গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট মাঠে মেলা উদ্বোধন করেন সংগীতশিল্পী রণজিৎ দেওয়ান। এ উপলক্ষে আলোচনা সভা আয়োজন করা হয়। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন দেশ বরেণ্য নাট্যজন মামুনুর রশীদ।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ বহুমাত্রিক দেশ, বহু জাতির বসবাস। ৪০টি ভাষাভাষীর ৪৫টির অধিক পাহাড়ি জনগোষ্ঠীর বসবাস রয়েছে। তাদের সংস্কৃতি ও শিক্ষাকে উপেক্ষা করে বহুমাত্রিক দেশ পাওয়া সম্ভব না। পার্বত্য চট্টগ্রাম জুম সংস্কৃতি মেলা এখানে নতুন দিগন্তের সৃষ্টি করবে, নতুন করে সংস্কৃতিচর্চার প্রেরণা জোগাবে।

জুম ইসথেটিকস কাউন্সিলের সভাপতি শিশির চাকমার সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন রাঙামাটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউটের পরিচালক রুনেল চাকমা, খাগড়াছড়ি ক্ষুদ্র নৃ–গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউটের পরিচালক জীতেন চাকমা, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব মনোজ বাহাদুর গুর্খা, কবি মৃত্তিকা চাকমা প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য দেন জুম ইসথেটিকস কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক রনেল চাকমা।

এর আগে বাঁশি ও ঢোল বাজানোর সঙ্গে মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্বালনের মধ্য দিয়ে তিন দিনব্যাপী মেলার উদ্বোধন করা হয়।

অনুষ্ঠানে সাহিত্য ও সংস্কৃতিতে অবদানের জন্য কবি ও লেখক সুগত চাকমা, ক্যশৈপ্র খোকা ও সংগীতে অমর শান্তি চাকমাকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। সন্ধ্যায় ছিল আদিবাসী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন। ৯ এপ্রিল পর্যন্ত মেলা চলবে।

মন্তব্য লিখুন :