নোবেলের বিরুদ্ধে গুরুতর ২ অভিযোগ

উঠতি কণ্ঠশিল্পী নোবেলের বিরুদ্ধে গুরুতর দুইটি অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে আলোচনা সমালোচনা।

সারাগামাপা’র ৬ নম্বর স্থানে যাওয়ার জন্য নোবেল গান হাসানের গাওয়া সর্বাধিক জনপ্রিয় গান ‘এতো কষ্ট কেন ভালোবাসায়…’ কিন্তু এই গানকে নোবেল কলকাতার সে মঞ্চে বললেন টুলু-হাসানের ব্যান্ডের গান। অর্থাৎ এটি নাকি আর্ক ব্যান্ডের গান।

আদতে গানটির কথা ও সুর প্রিন্স মাহমুদের। ১৯৯৮ সালে মুক্তি পাওয়া শেষ দেখা অ্যালবামের গান এটি। নোবেলের পারফর্ম সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন প্রিন্স মাহমুদ। তিনি বলেন , ‘দুঃখিত, এতো কষ্ট কেন ভালবাসায় আর্ক ব্যান্ড এর গান না। এটা ১৯৯৮ এ রিলিজ হওয়া আমার কথা ও সুরে আমার মিক্স এ্যালবাম “শেষ দেখা” র গান, হাসান গেয়েছিল।’

এরপর ভুলের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি। তবে নেটিজেনদের প্রশ্ন হচ্ছে একজন শিল্পী কিভাবে এমন ভুল করে? নাকি সে জেনে বুঝেই করেছে?

দ্বিতীয় অভিযোগটি আরও গুরুতর। জেমস গুরুর নাম এমন ভাবে বলে মনে হয় জেমস তার বন্ধু। অথচ সান্তনু মৈত্রকে কে স্যার বলেই সম্মানের সাথে ডেকেছে। এটাকে ভালো চোখে দেখছে না কেউ।

এক নেটিজেনের মন্তব্য, নোবেল যে গানটি গাইতে যাবেন তার আগে গানটি সম্পর্কে খুঁটিনাটি জেনে নেওয়া প্রয়োজন। কলকাতার মঞ্চে বাংলাদেশের গানকে ভুলভাবে প্রেজেন্ট করা শোভনীয় নয়।

আরেকজন লিখেছেন, সে ইচ্ছাকৃত ভাবে একই ভুল বার বার করছে। এভাবে কতদূর আগাতে পারবেন? সাময়িক খ্যাতি পেয়ে ধরাকে সরা জ্ঞান করা উচিৎ না।

মন্তব্য লিখুন :