একাধিক বিবাহিত পুরুষের সাথে সম্পর্ক ছিল সালমানের এই নায়িকার

হিন্দির পাশাপাশি দাপটের সঙ্গে অভিনয় করেছেন ভোজপুরি, পাঞ্জাবি ও দক্ষিণী ভাষার ছবিতেও। তিনি নাগমা। সুন্দরী এই অভিনেত্রীর ব্যক্তিগত জীবন এগিয়েছে বিতর্কের সঙ্গেই।

নাগমার জন্মগত নাম ছিল নন্দিতা অরবিন্দ মোরারজি। পরে তাঁর নাম রাখা হয় নাগমা অরবিন্দ মোরারজি। 

১৯৯০ সালে নাগমার প্রথম ছবি। তিনি সলমনের নায়িকা হন ‘বাগি: এ রেবেল অব লভ’ ছবিতে। ‘কিং আঙ্কল’, ‘সুহাগ’, ‘লাল বাদশা’, ‘চল মেরে ভাই’, ‘ইয়ে তেরা ঘর ইয়ে মেরা ঘর’, ‘অব তুমহারে হাওয়ালে বতন সাথিয়ো’ ছবি নাগমার কেরিয়ারে উল্লেখযোগ্য।

নাগমা বিয়ে করেননি। তাঁকে ঘিরে একাধিক পুরুষকে নিয়ে গুঞ্জন শোনা গিয়েছে বারবার। এক বাঙালি ক্রিকেটারের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক বহুলচর্চিত।

দক্ষিণের নামী অভিনেতা ও সাংসদ শরত কুমারের সঙ্গে নাগমার সম্পর্ক ছিল বলে শোনা যায়। তবে বিবাহিত শরত কুমারে সঙ্গে নাগমার প্রেম স্থায়ী হয়নি।

ভোজপুরি ছবির সুপারস্টার রবি কিষেণের সঙ্গে তাঁর বিশেষ ঘনিষ্ঠতা কার্যত ‘ওপেন সিক্রেট’। নাগমা কোনও দিন এই সম্পর্ক নিয়ে কিছু বলেননি। কিন্তু রবি কিষেণ বলেন, তাঁর স্ত্রী প্রীতি এই সম্পর্ক নিয়ে ওয়াকিবহাল।

এরপর ভোজপুরি ছবির আর এক নায়ক মনোজ তিওয়ারির সঙ্গেও নাগমার ঘনিষ্ঠতা ছিল বলে গুঞ্জন শোনা যায়।

বারবার বিবাহিত পুরুষের সঙ্গে নিজেকে জড়িয়ে ফেলা নাগমা নিজের জীবনে এখনও একা। তাঁর ধ্যানজ্ঞান এখন রাজনীতি। জুলি-২ সিনেমা তাঁকে কেন্দ্র করেই তৈরি হয়েছে বলে মনে করা হয়।  

মন্তব্য লিখুন :