জেসুসের ৪, ম্যানসিটি দিল ৯ গোল

ইংলিশ কোরাবো কাপের ম্যাচে বার্টন আলবিওনকে ৯-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। সিটির হয়ে একাই চার গোল করেছেন ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার গ্যাব্রিয়েল জেসুস। এই জয়ে কোরাবো কাপের ফাইনাল অনেকটাই নিশ্চিত হয়ে গেছে সিটিজেনদের।

বুধবার (৯ জানুয়ারি) অনুষ্ঠিত ম্যাচে গোলের জন্য কোনো অপেক্ষাই করতে হয়নি গার্দিওলার শিষ্যদের। ম্যাচের ৫ মিনিটের সময় সানের বাড়ানো ক্রস থেকে আলতো হেডে বল জালে জড়ান কেভিন ডি ব্রুইনি।

এরপর অবশ্য দ্বিতীয় গোল পেতে সিটিকে অপেক্ষা করতে হয় ২৫ মিনিট। এবারও গোলের যোগানদাতা সেই জার্মান মিডফিল্ডার সানে। ডি-বক্সের শেষ মাথা থেকে এবার তার বাড়ানো ক্রস হেডে জালে জড়ান জেসুস। ৪ মিনিট পরেই আসে তৃতীয় গোল। এবার নিজের জোড়া পূর্ণ করেন জেসুস।

তিন মিনিট পর গোলের দেখা পান জিনচেনকো। ব্রুইনির দেয়া পাস ডি-বক্সের ৫ গজ দূরে থেকে দুর্দান্ত এক শটে জালে জড়ান তিনি। এতেই ৩৭ মিনিটে স্কোর হয়ে যায় ৪-০। তবে এরপরও থেমে থাকেননি গার্দিওলার শিষ্যরা। চালাতে থাকেন আক্রমণ। তবে বিরতির আগে তারা আর ব্যবধান বাড়াতে পারেননি।

বিরতির পর মাঠে নেমে তারা প্রথম গোল পান ৫৭ মিনিটে। এবারের গোলটিও আসে হেড থেকে। আর ঘাতক সেই ব্রাজিলিয়ান। এতেই জেসুসের বছরের প্রথম হ্যাটট্রিক পূর্ণ হয়।

গোল বন্যার এ ম্যাচে নবাগত ফডেনই বা বসে থাকবেন কেন। ৬২ মিনিটে তিনিও গোল করেন। তবে এই গোলটি পাওয়ার কথা ছিল জেসুসের। গোলকিপারের ঠিক সামনে থেকে তিনি শট নিলে তা গোলকি কলিন্সের পায়ে লেগে ফেরত আসে। সেই বলই জালে জড়ান ফডেন।

গোল মিস করা জেসুসের অবশ্য এতে আফসোস হয়নি। কারণ ৩ মিনিট পর তিনিও আরও একটি গোল করেন। এরপর ৭০ মিনিটে কাইল ওয়াকার ও ৮৩ মিনিটে রিয়াদ মাহারেজ গোল করে স্কোরলাইন করেন ৯-০।

পুরো ম্যাচে ২৬ শতাংশ বল নিজেদের দখলে রাখতে পেরেছে বার্টন। আর পোস্টে তারা শুধু একটি বলই মেরেছে। অন্যদিকে, পোস্টে মোট ১৪টি বল মারে সিটি। আর প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডারদের চ্যালেঞ্জে ফেলেন ২৮ বার।

এটি ছিল সেমিফাইনালের প্রথম লেগ। পরের লেগটি হবে বার্টনের মাঠে।

মন্তব্য লিখুন :