মায়োর্গার কাপরে ধর্ষণের আলামত, রোনালদোর ডিএনএ টেস্ট হবে

ধর্ষণ মামলায় এবার বোধয় ফেঁসেই যাচ্ছেন পর্তুগিজ যুবরাজ ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। কারণ তার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তোলা মার্কিন তরুণী ক্যাথরিন মায়োর্গার কাপরে ধর্ষণের আলামত মিলেছে। মায়োর্গার কাপরে মেলা ওই স্যাম্পল রোনালদোর কি না সেটা জানতে রোনালদোর ডিএনএ টেস্ট করা হবে। এর প্রেক্ষিতে ডিএনএ টেস্টের জন্য স্যাম্পল দিতে রোনালদোর বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট জারি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১০ জানুয়ারি) লাস ভেগাস মেট্রোপলিটন পুলিশ ইতালি সরকারের কাছে ওই ওয়ারেন্ট পাঠায়। কারণ রোনালদো জুভেন্টাসে খেলার সুবাদে এখন ইতালি অবস্থান করছে।

মায়োর্গার দাবি ছিল, ২০০৯ সালে লাস ভেগাসের একটি হোটেলে রোনালদো তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এরপর ঘটনা ধামাচাপা দিতে বিরাট অঙ্কের অর্থ দেয়। তখন তিনি সম্মানের ভয়ে ধর্ষণের বিষয়টি কাউকে জানাননি। তবে এখন #মি টু থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে বিষয়টি সবার সামনে এনেছেন।

এই ঘটনায় গত বছরের সেপ্টেম্বরে তিনি রোনালদোর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পরে ওই মামলা আমলে নেয় আমেরিকার একটি আদালত। এরপর তারা মামলা তদন্তের জন্য লাস ভেগাস পুলিশ ও এফবিআইকে ভার দেয়।

লাস ভেগাস মেট্রোপলিটন পুলিশ জানায়, ধর্ষণের দিন মায়োর্গা যে পোশাক পরিহিত ছিল সেখানে বীর্যসহ ধর্ষণের একাধিক আলামত মিলেছে। সেটি রোনালদোর কি না তা জানার জন্যই এখন ডিএনএ টেস্ট হবে। ইতোমধ্যেই স্যাম্পলের জন্য তারা ওয়ারেন্ট জারি করেছেন। এখন রোনালদো স্যঅম্পল দিলেই হবে পরীক্ষা।

মন্তব্য লিখুন :