‘ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগই বেশি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ’

লা লিগা ও বুন্দেস লিগার তুলনায় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগই বেশি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ। ইপিএলের শিরোপার দৌড়ে লিভারপুলের সঙ্গে কঠিন লড়াইয়ের মাঝে এমন মন্তব্য করেছেন ম্যানচেস্টার সিটির কোচ পেপ গার্দিওলা। এদিকে, য়্যুভেন্তাস ছাড়লে পরের মৌসুমে ম্যাসিমিলিয়ানো অ্যালেগ্রিকে কোচ হিসেবে পেতে চায় পিএসজি। আর য়্যুভেন্তাস তারকা পাওলো দিবালাকে দলে পেতে আগ্রহী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও বায়ার্ন মিউনিখের মতো ক্লাবগুলো।

কোচিং ক্যারিয়ারে যেখানেই গেছেন, পেপ গার্দওলা জিতেছেন সম্ভাব্য সবকিছু। স্পেন, জার্মানি ঘুরে দাপট দেখাচ্ছেন ইংল্যান্ডেও। চ্যাম্পিয়ন্স লিগ সহ বার্সেলোনাকে জিতিয়েছেন হেক্সা। লা লিগায় সফল এই কোচের শিরোপা আছে ৩টি। বায়ার্ন মিউনিখের হয়ে বুন্দেস লিগায়ও আছে ৩ শিরোপা। পরে ম্যানচেস্টার সিটিতে যোগ দিয়ে শোকেসে পুরেছেন ইপিএলের ট্রফিটাও। শিরোপা ধরে রাখার দারুণ সম্ভাবনা আছে এবারো।

তবে, বর্ণীল কোচিং ক্যারিয়ারে ইংলিশ লিগকেই সবচেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ মনে হয়েছে গার্দিওলার। লিভারপুল, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, চেলসি, আর্সেনাল, টটেনহ্যামের মতো দলের সঙ্গে লড়াই করে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে ওঠা কঠিন ব্যাপার। তাই কোচিং ক্যারিয়ারে ইংল্যান্ডেই সবচেয়ে বেশি স্নায়ুচাপের পরীক্ষা দিতে হয়েছে তাকে। এদিকে, বার্সেলোনার মেসি-সুয়ারেজ-নেইমার আর লিভারপুলের বর্তমান সালাহ-সাদিও মানে-ফিরমিনোকে নিয়ে গড়া আক্রমণভাগকেই কঠিনতম প্রতিপক্ষ মনে হয়েছে স্প্যানিশ কোচের।

এদিকে, ইউরোপের দল বদলের আলোচনায় আছেন আরেক তারকা কোচ ম্যাসিমিলিয়ানো অ্যালেগ্রি। ৫ বছরে য়্যুভেন্তাসকে ১১টি বড় শিরোপা জেতানো এই কোচ চলতি মৌসুম শেষেই ইতালি ছাড়ছেন, এমন খবর শোনা যাচ্ছে বেশ আগে থেকেই। সে খবর আরো জোরালো হয়েছে। রোম ভিত্তিক একটি ক্রীড়া বিষয়ক পত্রিকায় প্রকাশিত তথ্যানুযায়ী, থমাস টাচেলের উত্তরসূরী হিসেবে অ্যালেগ্রিকে দলে পেতে জোর চেষ্টা চালাচ্ছে ফ্রেঞ্চ জায়ান্ট পিএসজি।

এদিকে, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো যোগ দেয়ার পর থেকেই য়্যুভেন্তাসের একাদশে কিছুটা অনিয়মিত পাওলো দিবালা। এই আর্জেন্টাইন ফরোয়র্ডকে নাকি ছেড়েও দিতে চায় ইতালির ক্লাবটি। গ্রীষ্মকালীন দলবদলে সিরি আ' চ্যাম্পিয়নরা তার মূল্য ধরতে পারে ১০০ মিলিয়ন ইউরো।

ট্রান্সফার মার্কেটে বেশ কদরও রয়েছে ২৫ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ডের। এরই মধ্যে নাকি তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। যদিও আরেক জায়ান্ট বায়ার্ন মিউনিখও দিবালাকে দলে পেতে বেশ আগ্রহী।

মন্তব্য লিখুন :