খেলার মাঝে মাঠের মধ্যেই দুই ফুটবলারের ইফতার

বুধবার রাতে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে সেমিফাইনালের দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল নেদারল্যান্ডসের ক্লাব আয়াক্স এবং ইংল্যান্ডের ক্লাব টটেনহ্যাম হটস্পার।ম্যাচের প্রথমার্ধে ২ গোল পিছিয়ে থেকেও ৩-২ গোলে জিতে নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ফাইনালের স্বাদ পেয়েছে টটেনহ্যাম।

তবে খেলার ইনজুরি টাইম পর্যন্ত আয়াক্সকেই ধরে নেয়া হচ্ছিল ফাইনালে লিভারপুলের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে। যদিও শেষ মুহূর্তে টটেনহ্যামের ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার লুকাস মোউরা সব সমীকরণ বদলে দেন। এদিন তিনি হ্যাটট্রিক করেন।

তবে মোউরার এমন কৃতিত্বের দিনেও সব কিছু ছাপিয়ে অনেকের মন জয় করে নিয়েছেন আয়াক্সের দুই মুসলিম ফুটবলার হাকিম জিয়েচ ও নুসাইর মাজরুইয়ের।খেলার মাঝে মাঠের মধ্যেই এ দুই ফুটবলারের ইফতার করার দৃশ্যটি নেট দুনিয়ায় এখন ভাইরাল।রোজা রেখে মাঠে এর আগে অনেকবারই নেমেছেন হাকিম জিয়েচ ও নুসাইর মাজরুই।

গতকালের ম্যাচেও তেমনটি দেখা গেল। রোজা অবস্থায় খেলতে নেমে যান মাজরুই ও জিয়েচ। কিন্তু এবার বিষয়টি ছিল অন্যরকম। খেলার মধ্যেই ইফতারের সময়টি চলে আসে। ম্যাচের ২৪তম মিনিটে চলে আসে ইফতারের সময়।

ইফতারের সময় হলে খেলা চলাকালীন সাইডলাইন থেকে খেজুর নিয়ে দৌড়াতে দৌড়াতে সেটি দিয়ে ইফতার করেন এ দুই ফুটবলার।

তাদের এভাবে ইফতার করার ভিডিও প্রকাশ হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। ৭ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা যায়, সাইডলাইন থেকে খেজুর নিয়ে তা খেতে খেতে দৌড়ে খেলায় মনযোগী হচ্ছেন নুসাইর মাজরুই।

মুসলিমরা ছাড়াও ভিডিওটি শেয়ার করতে দেখা গেছে ভিন্ন ধর্মাবলম্বীদের। অনেকেই তার ধর্মভীরুতার বিষয়টির প্রশংসা করে তার ওপর শান্তি বর্ষণ করেছেন।

উল্লেখ্য, এদিন ইফতার করার ১১ মিনিট পর ম্যাচের ৩৫তম মিনিটে গোলের দেখা পেয়ে যান জিয়েচ। সতীর্থ ফন ডি বিকের পাস থেকে গোলরক্ষককে পরাস্ত করে ম্যাচের স্কোরলাইন ২-০ করেন তিনি।

কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে টটেনহ্যামের ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার লুকাস মোউরোর অসাধারণ এক হ্যাটট্রিকে লিগে রিয়াল মাদ্রিদ ও জুভেন্টাসের মতো দুই শক্তিধরকে হারানো আয়াক্সের ফাইনালের স্বপ্ন ভঙ্গ হয়।

মন্তব্য লিখুন :