ট্রান্সফারের ইতিহাস ভেঙে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদে ফেলিক্স

এবারের ট্রান্সফার মৌসুমের সবচেয়ে আলোচিত নাম ছিল জোয়াও ফেলিক্স। বার্সেলোনা, পিএসজি, রিয়াল মাদ্রিদ, জুভেন্টাস, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছিল তাকে কেনার প্রচেষ্টায়। তবে সবাইকে টেক্কা দিয়ে ১২৬ মিলিয়নে এই তারকাকে দলে ভিড়িয়েছে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ। বাংলাদেশি টাকায় হেনেব করলে তার মূল্য ১১৫১ কোটি টাকারও বেশি।

বেনফিকার হয়ে প্রথম মৌসুমেই চমকে দেওয়া পারফরম্যান্স করেছেন। মাত্র ১৯ বছর বয়সে পর্তুগীজ ক্লাবের সিনিয়র দলে আত্মপ্রকাশ করেই সব টুর্নামেন্ট মিলিয়ে ২০টি গোল করেছেন। গত এপ্রিলে সব থেকে কম বয়সে ইউরোপা লিগে হ্যাটট্রিকের রেকর্ড গড়া পর্তুগীজ তাকরাকে তাই আতোয়ান গ্রিজম্যানের স্থলাভিষিক্ত করেছে স্প্য্যানিশ ক্লাবটি।

জোয়াও ফেলিক্সকে দলে নিতে ক্লাবের ইতিহাসে রেকর্ড অর্থ খরচ করে অ্যাতলেটিকো। সাত বছরের জন্য ১২৬ মিলিয়ন ইউরো পারিশ্রমিকের প্রস্তাব দেওয়া হয় পর্তুগীজ তারকাকে, যাতে সম্মত হন তিনি। ক্লাবে এসেও তিনি পাচ্ছেন গ্রিজম্যানের ৭ নম্বর জার্সিটি।

অ্যাতলেটিকোর তরফে এই খবর সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়ে দেওয়া হয় অনুরাগীদের। লা লিগা ক্লাবটির অফিসিয়াল স্টোরে ইতিমধ্যেই সাজানো রয়েছে ফেলিক্সের ৭ নম্বর জার্সি।

মন্তব্য লিখুন :