নিজের দুর্দিনের সময়েও দেশের অসহায় জনগণের পাশে মেসি

কোপা আমেরিকায় দেশেবাসীর মুখে হাসি ফোটাতে পারেননি লিওনেল মেসি। চিলির বিপক্ষে ম্যাচে লাল কার্ড দেখে বিধ্বস্ত তিনি।

তবে নিজের এমন দুর্দিনে দেশের মানুষের কথা ভুলেননি মেসি। দেশের জন্য কিছু একটা করতে সবসময়ই উদগ্রীব হয়ে থাকেন এই বিশ্বসেরা ফুটবল তারকা।

ফুটবল দিয়ে না হোক এবার অন্যভাবে দেশের মানুষের মুখে হাসি ফুটিয়েছেন মেসি। নিজ দেশের অসহায় জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছেন তিনি। নিজের রেস্টুরেন্টে গৃহহীনদের মাঝে বিনামূল্যে খাবারের ব্যবস্থা করেছেন এই বার্সেলোনা ফরোয়ার্ড।

স্প্যানিশ গণমাধ্যম মার্কা জানিয়েছে, গত শুক্রবার (০৫ জুলাই) থেকে তীব্র শৈত্য প্রবাহে জনজীবন বিপর্যস্ত আর্জেন্টিনায়। এতে দুর্ভোগে পড়েছে অনেক স্থানীয়রা। ঠিক মতো কাজে যেতে পারছেন না তারা, এমনকি খাবার যোগাতেও ব্যর্থ হচ্ছেন দেশটির দারিদ্রপীড়িতরা।

এমন পরিস্থিতিতে মেসি এবং তার পরিবারের মালিকানার ‘ভিআইপি’ নামের রেস্তোরাঁ থেকে বিনামূল্যে খাবার বিতরণ করা হচ্ছে।

যেসব দরিদ্ররা বৈরী আবহাওয়ার কারণে খাবার যোগাড়ে ব্যর্থ হচ্ছেন তাদের জন্য বিনা পয়সায় গরম গরম খাবার সরবরাহ করছে মেসির রেস্তোরাঁ।

রেস্তোরাঁটি আর্জেন্টিনায় মেসির জন্মস্থান রোজারিওতে অবস্থিত।

রেস্তোরাঁর ম্যানেজার অ্যারিয়েল আলমাদা মার্কাকে বলেন, ‘ এখানে এই বৈরী আবহাওয়ায় বিনামূল্যে খাবার দেয়া হচ্ছে। যারা আসছেন সম্মানের সঙ্গে খাবার খেয়ে যাচ্ছেন। আমরা খাবারের সঙ্গে ফ্রিতে কফি, সফ্ট ড্রিংকস এমনকি ওয়াইনও দিচ্ছি।’

আগামী ১৫ দিন পযর্ন্ত এভাবে বিনামূল্যে দরিদ্র জনগণকে খাবার উপহার দিয়ে যাবেন বলেন জানান অ্যারিয়েল আলমাদা।

তিনি বলেন, ‘ প্রতি সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ৯টা পযর্ন্ত আমরা এই সুবিধা দিচ্ছি।’

শুধু নিজের দেশের নয়, বিশ্বব্যাপী সুবিধাবঞ্চিত মানুষকে সাহায্য করে যাচ্ছেন লিওনেল মেসি। বার্সেলোনাতে ক্যান্সার আক্রান্ত মানুষদের জন্য অর্থ দিয়েছেন তিনি। সম্প্রতি কেনিয়াতে নিজের অর্থায়নে প্রতিষ্ঠা করেছেন ‘দ্য লিও মেসি ফাউন্ডেশন।’

দীর্ঘদিন ধরে ইউনিসেফের শুভেচ্ছা দূত হিসেবে কাজ করছেন এই আর্জেন্টাইন ফুটবল জাদুকর।

মন্তব্য লিখুন :