পেনাল্টি বিতর্কে মুখ খুললেন সেই রেফারি

কোপা আমেরিকার ২০১৯ আসর শেষ হয়ে গেছে। এবারের আসরে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ব্রাজিল। তাদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনা বাদ পড়েছে সেমিফাইনালে তাদের বিরুদ্ধে হেরেই। যদিও ওই ম্যাচটি নিয়ে জন্ম হয়েছিল বিতর্কের। এবার সে বিতর্ককে উস্কে দিয়েছেন ম্যাচের রেফারি।

সেমিফাইনালে ২-০ গোলে ব্রাজিলের কাছে হেরেছিল আর্জেন্টিনা। ম্যাচ শেষে লিওনেল মেসি অভিযোগ করেন, তারা দুইটি পেনাল্টি বঞ্চিত হয়েছেন। রেফারি ব্রাজিলকে জেতাতে সহায়তা করেছে মানে পক্ষপাতিত্ব করেছে। এ নিয়ে তদন্তেরও দাবি জানিয়েছিল মেসি। যা নিয়ে কনমেবলের তোপের মুখে পড়েন তিনি। এমনকি শোনা যাচ্ছে নিষিদ্ধও হতে পারেন তিনি।

এ বিতর্ক যখন চলছে ঠিক তখনই মুখ খুলেছেন সেই ম্যাচের রেফারি রডি জামব্রানো। ইকুয়েডরের রেফারি বলেন, ওটামেন্ডির পেনাল্টির ক্ষেত্রে যেটা হয়েছে, আমার কাছে মনে হয়েছে সে নিজেই ফাউলের শিকার হওয়ার জন্য অপেক্ষা করছিল। আর্থার মেলো ওকে কনুই মারেনি। বিষয়টা ভিএআর রেফারি দেখে আমাকে জানিয়েছিল, ৫০-৫০ সম্ভাবনা আছে পেনাল্টি দেওয়ার। তাদের কাছে মনে হয়নি এটার জন্য পেনাল্টি হতে পারে। কিন্তু পরদিন আমি যখন ফাউলটা ভালোভাবে দেখলাম, তখন আমার কাছে মনে হয়েছে ভিএআরের সহায়তা নেওয়া আসলেই উচিত ছিল।

তিনি বলেন, আমি যেন ভিএআরের সাহায্য নিই, সে ব্যাপারে আমাকে বলা উচিত ছিল তাদের। ভিএআর রেফারি লিওনিদ গঞ্জালেসের বলা উচিত ছিল। তবে সে আমাকে ভিআরের সাহায্য নিতে বলেনি।

ভিএআর রেফারি লিওনিদ গঞ্জালেস উল্টো জামব্রানোর ঘাড়ে দোষ চাপিয়ে বলেছেন, জামব্রানোকে বলা হয়েছিল ভিএআরের সাহায্য নেওয়ার জন্য, কিন্তু তিনি সাহায্য নেননি!

মন্তব্য লিখুন :