এসির হাওয়া শরীরে যেসব রোগের সৃষ্টি করে

গরম থেকে বাঁচতে আজকাল প্রতিটি অফিসেই ব্যবহার করা হয় এয়ার কন্ডিশনার (এসি)। শুধু অফিস নয় যন্ত্র বিপ্লবের এই যুগে প্রায় বাড়িতেই এসি পাওয়া যাবে। তাছাড়া, মার্কেট ও গাড়িতেও আজকাল এসির ব্যবহার প্রচুর। মোটকথা দিনের বেশিরভাগ সময়টাই আপনার থাকতে হচ্ছে এসির ঠাণ্ডা হাওয়ার নিচে।

গরমের ভেতর এসির হাওয়া সবারই ভালো লাগে। তবে আপনি ঘুণাক্ষরেও জানতে পারছেন না নিজের অজান্তেই এসি আপনার বিশাল ক্ষতি করছে। দিন দিন এসির হাওয়া আপনার শরীরে মারাত্মক সব রোগ সৃষ্টি করছে। তাহলে জেনে নিন এসির কারণে আপনার শরীরে যেসব রোগের সৃষ্টি করবে।

দ্রুত মেদ বাড়াবে: চিকিৎসকদের মতে, এসির শুকনো ও স্যাঁতসেঁতে হাওয়া শরীরে মেদ জমতে সাহায্য করে। তাই ওবেসিটির শিকার হন অনেকেই। এসি ঘরে না থাকা মানুষদের তুলনায়, এসি ঘরে থাকা মানুষদের মেদ দ্রুত বৃদ্ধি পায়।

মাইগ্রেন: এসি মাইগ্রেন সমস্যার অন্যতম কারণ।  তাছাড়া যে মাথাভ্যথাও বাড়িয়ে তোলে এসি। বহু ক্ষণ এসি ঘরে থাকলে ঠান্ডাজনিত অসুখের প্রাদুর্ভাব বাড়ে ফলে মাথা ব্যথার প্রকোপও বেড়ে যায়।

ভাইরাস সংক্রমণ: দীর্ঘ সময় এসিতে থাকার ফলে নাকের প্যাসেজ শুকনো হয়ে যায়। তার ফলে মিউকাস শুকিয়ে গিয়ে ভাইরাস সহজেই শরীরে প্রবেশ করতে পারে ।

ক্লান্তি: আরামের জন্য এসি চালালেও এসি আসলে আপনার শরীরকে শুষ্ক করে দেয়। ফলে জল শরীরের অভ্যন্তরে জলের চাহিদা তৈরি হয়। এতে আপনি দ্রুত ক্লান্ত হয়ে পড়বেন।

এছাড়াও এসির শীতল হাওয়ায় চোখ-কান-গলার ক্ষতি হয়। ঠান্ডা লাগা বা নাক-কান-গলায় সংক্রমণ ঠেকানো যায় না। এসির হাওয়া আপনার ত্বককেও ক্ষতিগ্রস্ত করে।

মন্তব্য লিখুন :