ঘরোয়া উপায়ে দূর করুন উকুন

আপনার বাচ্চার মাথায় কি উকুন হয় প্রায়ই? স্কুল থেকে টিনএজারদের মাথায় উকুন হওয়ার সমস্যা খুবই স্বাভাবিক। বাজারচলতি ক্ষতিকারক কেমিক্যাল বাচ্চাদের মাথায় লাগাবেন না বলে অনেকেই চুল কেটে দেন ছোট করে। জেনে নিন একেবারে প্রাকৃতিক, হার্বাল উপায়ে কীভাবে উকুন সারিয়ে তুলবেন।

হার্বাল উপায়ে উকুন তাড়ানোর জন্য অব্যর্থ টি ট্রি অয়েল। উকুন আমাদের স্ক্যাল্প থেকে রক্ত শুষে খায়। টি ট্রি অয়েল সেই রক্ত খাওয়া রোধ করতে পারে। ফলে উকুন বংশবৃদ্ধি করতে পারে না। জেনে নিন কীভাবে লাগাবেন টি ট্রি অয়েল।

১ চা চামচ টি ট্রি অয়েলের সঙ্গে আধ চা চামচ ল্যাভেন্ডার অয়েল মেশান। এই তেল মাথার তালুতে লাগিয়ে রাখুন সারা রাত। সকালে হালকা শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। এইসব তেলের গন্ধ উকুন সহ্য করতে পারে না।

টি ট্রি অয়েল এসেনশিয়াল অয়েল। যা মাথায় বেশি লাগানো উচিত নয়। তাই ৩ টেবল চামচ নারকেল তেলের সঙ্গে ১ চা চামচ টি ট্রি অয়েল মিশিয়ে নিন। এই তেল মাথায় লাগিয়ে রাখুন সারা রাত। সকালে শ্যাম্পু করে নিন। উকুন যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে চুল পুষ্টিও পাবে।

টি ট্রি অয়েল চুলে সরাসরি লাগালে অনেকের ক্ষেত্রে চুলকুনি হতে পারে। তাই পরিষ্কার জলের সঙ্গে কয়েক ফোঁটা টি ট্রি অয়েল মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণ চুলের গোড়ায় স্প্রে করুন। কিছুক্ষণ পর শ্যাম্পু করে নিন। কয়েকবার করার পর উকুন নির্মূল হয়ে যাবে।

তবে টি ট্রি অয়েল ব্যবহারের কিছু ঝুঁকি রয়েছে। ৫ বছরের নীচে বাচ্চাদের এই তেল ব্যবহার করা উচিত নয়। প্রেগন্যান্ট মহিলাদের ক্ষেত্রেও ঝুঁকিপূর্ণ হতে পারে টি ট্রি অয়েলের ব্যবহার।

মন্তব্য লিখুন :