আপনার কী সারাদিন ঘুম পায়?

আপনার কি সারাদিনই ঘুম পায়? কাজের মাঝে প্রায়ই ঘুমিয়ে পড়েন? কেন এত বেশি ঘুম পায়? আপনি নারকোলেপ্সিতে ভুগছেন না তো? দেখুন তো এই সমস্যাগুলোও হচ্ছে কিনা৷

নারকোলেপ্সির সবচেয়ে বড় লক্ষণ হল কাজের মধ্যে সারাদিন ঘুম পাওয়া৷ কেউ কেউ ঘুমিয়েও পড়েন৷ এদের মধ্যে ৪০ শতাংশই ঘুম ভেঙেই যে কাজ করছিলেন সেটা করে যেতে পারলেও বাকিরা রীতিমতো ভুলে যান কী করছিলেন।

আপনার কি মাঝে মাঝেই পেশী শিথিল হয়ে যায়? হাত, পা কিছুই নাড়াতে পারেন না? এই সমস্যাকে বলা হয় ক্যাটালেপ্সি৷ সাধারণত ঘুম যখন পাতলা হয়ে আসে আরইএম পর্যায়ে এমনটা হয়ে থাকে৷

স্লিপ প্যারালিসিসও অনেকটা ক্যাটালেপটিক অ্যাটাকের মতো৷ ঘুমের মধ্যে মনে হয় পুরো শরীর শিথিল হয়ে গিয়েছে৷ সাধারণতন যারা নারকোলেপ্সিতে ভোগেন তাদের ১৭ থেকে ৪০ শতাংশের স্লিপ প্যারালিসিসের সমস্যা রয়েছে৷

নারকোলেপ্সির অন্যতম সমস্যা হল ডিস্টার্বড স্লিপ বা ঘুমের সমস্যা৷ সাধারণত আমরা ঘুমনোর ৮০ থেকে ৯০ মিনিটের মধ্যে স্বপ্ন দেখা শুরু করি৷ কিন্তু যারা নারকোলেপ্সিতে ভুগছেন তারা ঘুমনোর ১৫ মিনিটের মধ্যে স্বপ্ন দেখতে শুরু করেন৷ এর ফলে ঘুম ভেঙে যায় ও অনিদ্রার সমস্যা হয়৷

যাদের নারকোলেপ্সির সমস্যা রয়েছে তারা ঘুমনোর আগে বা ঘুম থেকে উঠে অনেক সময়ই হ্যালুসিনেট করেন৷ আপনার কি হ্যালুসিনেশনের সমস্যা হয়?

নারকোলেপ্সিতে ভোগার অন্যতম লক্ষণ হল ওজন বাড়া৷ ঘুম না হলে অতিরিক্ত মেদ জমার প্রবণতা দেখা যায়৷