বগুড়া-৩: খোকা রাজাকারের মনোনয়ন বাতিল চেয়ে ইসিতে আপিল

বগুড়া-৩ (আদমদীঘি ও দুপচাঁচিয়া) আসনে ধানের শীষের প্রার্থী বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা আব্দুল মোমিন তালুকদার খোকার মনোনয়ন বাতিলের দাবি জানিয়ে নির্বাচন কমিশনে আপিল করেছেন এক মুক্তিযোদ্ধা।

বুধবার (৫ ডিসেম্বর) নির্বাচন কমিশনে আপিলটি দায়ের করেন বগুড়া-৩ আসনের দুপচাঁচিয়া উপজেলার বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা ও দৈনিক ভোরের কাগজের উপজেলা প্রতিনিধি এম সরওয়ার খান।

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বগুড়া-৩ (আদমদীঘি ও দুপচাঁচিয়া) আসনে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ঐক্যফ্রন্ট থেকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে যুদ্ধাপরাধ ও মানবতা বিরোধী মামলার পলাতক আসামী বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা আব্দুল মোমিন তালুকদার খোকাকে। বিকল্প হিসাবে দেওয়া হয়েছে তাঁর স্ত্রী মাছুদা মোমিন তালুকদারকে। এতে বিএনপির নেতা ও কর্মী-সমর্থকরা উচ্ছাস প্রকাশ করলেও মুক্তিযোদ্ধাসহ স্বাধীনতার স্বপক্ষের মানুষ ব্যাপক ক্ষুদ্ধ-বিক্ষুদ্ধ।

এর প্রেক্ষিতে বুধবার নির্বাচন কমিশনে আপিল দায়ের করেন সরওয়ার খান। তিনি তাঁর দায়ের করা আপিলে দুইটি কারণ উল্লেখ করেছেন। প্রথম কারণ হিসাবে আব্দুল মোমিন তালুকদার খোকার পক্ষে তার মেয়ে নাসিমা আক্তার লাকী কর্তৃক বগুড়া জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার নিকট জমা দেওয়া ও রিটার্নিং কর্তৃক বৈধ হিসাবে গ্রহণ করা মনোনয়নপত্রে প্রার্থীর স্বাক্ষর নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করা হয়েছে এবং দ্বিতীয় কারণ হিসাবে হলফনামায় তথ্য গোপন করার দাবি করা হয়েছে।

আপিল দায়েরকারী এম, সরওয়ার খান বলেন, যেহেতু রাজাকার কমান্ডার আব্দুল মোমিন তালুকদার খোকা যুদ্ধাপরাধ ও মানবতাবিরোধী মামলায় দীর্ঘদিন ধরে পলাতক সেহেতু পুলিশের কড়া নজরদারি ফাঁকি দিয়ে মনোনয়নপত্রে স্বাক্ষর করা অসম্ভব ব্যাপার। ওই স্বাক্ষর জাল-জালিয়াতির স্বাক্ষর বলে তিনি দাবি করেছেন।

বুধবার দুপুরে এ খবর এলাকায় পৌঁছলে রাজনৈতিক ও ভোটের মাঠে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন :